তালেবান নিয়ে বিরোধ, সার্ক বৈঠক বাতিল? | বিশ্ব | DW | 22.09.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

তালেবান নিয়ে বিরোধ, সার্ক বৈঠক বাতিল?

তালেবান নিয়ে বিরোধের জেরে বাতিল হতে পারে নিউ ইয়র্কে সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক।

তালেবান-প্রশ্নে বাতিল হতে পারে সার্কের পররাষ্ট্র্রমন্ত্রীদের বৈঠক।

তালেবান-প্রশ্নে বাতিল হতে পারে সার্কের পররাষ্ট্র্রমন্ত্রীদের বৈঠক।

নিউ ইয়র্কে সার্ক গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল ২৫ সেপ্টেম্বর। পাকিস্তান দাবি তোলে এই বৈঠকে তালেবানকে অংশ নিতে দিতে হবে। আশরাফ গনির সময়কার আফগান প্রতিনিধি যেন অংশ না নেন। তা নিয়ে মতৈক্যে পৌঁছতে পারেনি সদস্য দেশগুলি। তাই  সার্ক  বৈঠক বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদসংস্থা এএনআই। তবে এখনো পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়নি।

হিন্দুস্তান টাইমসের রিপোর্ট বলছে, এখন সার্কের চেয়ারম্যান নেপালের তরফ থেকে বাকি সদস্য দেশের সঙ্গে আফগানিস্তান ও তালেবানের প্রতিনিধিত্বের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। কিন্তু সার্ক দেশগুলি এই বিষয়ে একমত হতে পারেনি। তাই  বৈঠক বাতিল করা হবে। সচিবালয়ের তরফ থেকে সদস্য দেশগুলিকে চিঠিও দেয়া হচ্ছে।

এমনিতেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্কের উত্তেজনার কারণে আগে সার্ক বৈঠক বাতিল হয়েছে। সেই উত্তেজনা এখনো আছে। কিন্তু এবার প্রশ্ন দেখা দিয়েছে আফগানিস্তান নিয়ে। তালেবান এখন আফগানিস্তান দখল করে নিয়েছে। কিন্তু তারা বিশ্বের অধিকাংশ দেশের স্বীকৃতি পায়নি। ভারত আবার তালেবানের শাসন বৈধ কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে।

পাকিস্তানের দাবি ছিল, তালেবানের প্রতিনিধিকে সার্ক বৈঠকে অংশ নিতে দিতে হবে। আর তাদের প্রতিনিধি যে বৈঠকে থাকবেন নেপালকে তার নিশ্চয়তা দিতে হবে। কিন্তু নেপাল সেই নিশ্চয়তা দিতে রাজি হয়নি। ভারত সহ কয়েকটি দেশ তালেবানের প্রতিনিধির অংশগ্রহণের বিপক্ষে ছিল। তখন একটি প্রস্তাব আসে, আফগানিস্তানের চেয়ার ফাঁকা রাখা হবে। কিন্তু পাকিস্তান সেই প্রস্তাবে রাজি হয়নি। তাই বৈঠক বাতিল করা ছাড়া আর কোনো উপায় থাকছে না।

জিএইচ/এসজি(এএনআই, হিন্দুস্তান টাইমস)