তালেবানের নির্দেশে মুখ ঢেকেই টিভি-তে নারীরা | বিশ্ব | DW | 23.05.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

আফগানিস্তান

তালেবানের নির্দেশে মুখ ঢেকেই টিভি-তে নারীরা

প্রথমে এই নির্দেশ তারা মানতে চাননি। কিন্তু রোববার আফগানিস্তানের নারী সাংবাদিক ও উপস্থাপকরা মুখ ঢেকেই কাজ করলেন।

মুখ ঢেকেই কাজ করলেন আফগানিস্তানের টিভি উপস্থাপক নারীরা।

মুখ ঢেকেই কাজ করলেন আফগানিস্তানের টিভি উপস্থাপক নারীরা।

শনিবার তারা কার্যত বিদ্রোহ ঘোষণা করেছিলেন। তালেবানের নির্দেশ সত্ত্বেও আফগানিস্তানের নারী উপস্থাপক ও সাংবাদিকরা মুখ ঢাকেননি। কিন্তু একদিনের মধ্যেই পরিস্থিতি বদলে গেল। রোববার তারা মুখ ঢেকেই টিভি-র সামনে এসেছেন। তারা তাদের ক্ষোভের কথা জানালেও  মুখ ঢেকেই টিভি ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন।

এই নারী সাংবাদিক ও উপস্থাপকদের আশা ছিল, তাদের ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদ দেখে তালেবান নেতৃত্ব হয়তো সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবেন। কিন্তু তালেবান জানিয়ে দেয়, এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। এর আর কোনো নড়চড় হবে না। এনিয়ে কোনো আলোচনাও হবে না। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে জানিয়ে দেয়া হয়, এই নীতি চূড়ান্ত ও পরিবর্তনের কোনো প্রশ্নই ওঠে না।

'ঠিকভাবে কথা বলতে পারছি না'

টোলো নিউজের উপস্থাপক সোনিয়া নিয়াজি তার হতাশার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ''বিদেশি সংস্কৃতি আমাদের উপর চাপানো হচ্ছে। উপস্থাপনার সময় মুখ ঢাকলে খুবই অসুবিধা হয়।''

টোলোনিউজের চিফ এডিটর সাফি ফেসবুকে লিখেছেন, ''আজ আমাদের দুঃখের দিন। পুরুষ সাংবাদিকরাও রোববার নিজেদের মুখ কালো মাস্ক দিয়ে ঢেকে রেখেছিল।''

আরেক উপস্থাপক খাতিরা আহমেদি বলেছেন, ''আমি ভালো করে নিঃশাস নিতে পারছি না, ঠিকভাবে কথা বলতে পারছি না, তাহলে কী করে অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করব?''

লাইভ অনুষ্ঠানে আরিয়ানা নিউজের নারী উপস্থাপক বসিরা জোয়া বলেছেন, ''ইসলাম কারো উপর জোর করে কিছু চাপিয়ে দেয় না। আমরা এই নির্দেশের বিরুদ্ধে লড়াই করছি ও করব।''

টোলোনিউজের ডিরেক্টর নাজাফিজাদা টুইট করে বলেছেন, ''এমন দিন দেখতে হবে ভাবিনি।''

জিএইচ/এসজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)