ঢাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ | বিশ্ব | DW | 26.10.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

ঢাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ

সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রেক্ষাপটে মঙ্গলবার রাজধানীর নয়া পল্টনে শান্তি সমাবেশ করেছে বিএনপি৷ এরপর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে কাকরাইলের দিকে এগোলে নাইটিঙ্গেল মোড়ের কাছে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে৷

এ সময় বিএনপিকর্মীরা রাস্তার দুই পাশের গলিতে ঢুকে পড়ে পুলিশের দিকে ঢিল ছুড়তে থাকেন৷ পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে ও লাঠিপেটা করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় বলে জানিয়েছে বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম৷

ঘটনাস্থলে উপস্থিতসাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ঢাকা মহানগর পুলিশের মতিঝিল জোনের উপ-কমিশনার আব্দুল আহাদ বলেন, বিএনপি কর্মীদের মিছিল করার কথা ছিল না৷ সমাবেশ শেষে বিএনপি মহাসচিবও সে কথা বলেছিলেন৷

‘‘এরপরও আপনারা দেখেছেন, মিছিল সহকারে নেতাকর্মীরা যখন এখানে আসে, আমাদের পুলিশের ওপর ইট পাটকেল ছোড়ে, তখন পুলিশ বাধ্য হয়ে লাঠিচার্জ করে৷ আমার অনেক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে তাদের ইট পাটকেলে৷… যেভাবে পুলিশের ওপর তারা ইট পাটকেল ছুড়েছে, এটা কোনো সভ্য দেশে কাম্য হতে পারে না৷''

এসময় একজন সাংবাদিক বলেন, বিএনপি তাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে হামলার অভিযোগ করেছে পুলিশের বিরুদ্ধে৷

উত্তরে ওই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘‘এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা৷''

দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রতিক সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রেক্ষাপটে এই শান্তি শোভাযাত্রা ও সমাবেশের কর্মসূচি দিয়েছিল বিএনপি৷ তাতে অংশ নিতে সকাল থেকেই নেতাকর্মীরা নয়া পল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিতে শুরু করেন৷ তাদের অবস্থানের কারণে সড়কের এক পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়৷

এদিকে বিএনপির এ কর্মসূচি ঘিরে সকাল থেকেই বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়৷ কাছেই দেখা যায় পুলিশের সাঁজোয়া যান৷

পুলিশের উপস্থিতির মধ্যে বিএনপি নেতা-কর্মীরা কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ শুরু করলে উত্তেজনা বাড়তে থাকে৷ ‘এক হও লড়াই করো' ‘জিয়ার সৈনিক হও, এক হও' ‘মুক্তি মুক্তি মুক্তি চাই, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই'- ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন বিএনপি নেতাকর্মীরা৷  

সেখান থেকে দুই ডজনের বেশি নেতা-কর্মীকে পুলিশ আটক করে নিয়ে গেছে বলে বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেছেন৷ তবে পুলিশের তরফ থেকে এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য আসেনি৷ 

বেলা ১১টায় বিএনপি অফিসের সামনে ছোট একটি ট্রাকে শান্তি সমাবেশ শুরু হয়৷ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, দক্ষিণের আহবায়ক আবদুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা রুহুল কবির রিজভী, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, যুব দল, স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্র দল, মহিলা দলের নেতারা সেখানে অংশ নেন৷

মির্জা ফখরুল সমাবেশ থেকে সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান জানান এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানান৷ তার বক্তব্য শেষ হওয়ার পর মিছিল শুরু হতেই নাইটিঙ্গেল মোড়ে সংঘর্ষ বাঁধে৷

জেডএইচ/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

সংশ্লিষ্ট বিষয়