ডেনমার্কে নেকাব নিষিদ্ধ | বিশ্ব | DW | 01.06.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ডেনমার্ক

ডেনমার্কে নেকাব নিষিদ্ধ

ডেনমার্কের সংসদে জনসমক্ষে মুখ ঢেকে চলা বা নেকাব ব্যবহার নিষিদ্ধের আইন পাস হয়েছে৷ নেকাব ইসলামিক পোশাক হিসেবে বহুল পরিচিত হলেও ডেনমার্কের সরকার বলছে, কোনো ধর্মকে উদ্দেশ্য করে এ আইন তৈরি হয়নি৷

বৃহস্পতিবার অন্য বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশের মতো ডেনমার্কের সংসদেও এ সংক্রান্ত আইন পাস হয়৷ ইউরোপের ‘ইসলামোফোবিয়া' নিয়ে দিন দিন যে উদ্বেগ বাড়ছে, তারই প্রেক্ষিতে ডেনমার্ক এ আইন পাস করলো৷

কট্টরপন্থি মুসলিম হিসেবে পরিচিতদের একটি বড় অংশ নারীদের জনসমক্ষে মুখ ঢেকে রাখাকে শরিয়া বা ইসলামিক আইনের অবশ্য পালনীয় অংশ হিসেবে মনে করেন৷

ডেনমার্কের সংসদে আইনটি পাসে ভোট পরে ৭৫টি৷ ৩০টি ভোট পরে নেকাবের পক্ষে৷ তবে পাস হওয়া আইন অনুযায়ী, নেকাবের পাশাপাশি মুখ, ঘাড় ও মাথা ঢেকে রাখার টুপি ‘ব্লালাকাভা', স্কি মাস্ক, মুখের মাস্ক এভং নকল দাঁড়ি পরাও নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷

তবে শরীর সুরক্ষার পোশাক এই আইনে নিষিদ্ধের তালিকায় নেই৷ যেমন বায়ু দূষণ বা অন্যান্য কিছু থেকে সুরক্ষাকারী মাস্ক, শীতকালীন মুখ ঢাকা বা মাথা ঢাকার পোশাক, মোটর সাইকেলের হেলমেট এবং বিভিন্ন উৎসব বা হ্যালোইনে ব্যবহার করা মাস্ক৷

প্রথমবার আইনভঙ্গকারীকে ১ হাজার ক্রোনার বা ১৩৪ ইউরো (প্রায় ১৩ হাজার টাকা) জরিমানার বিধান রেখে আইন করেছে ডেনিশ সংসদ৷ এরপর আইন ভঙ্গ করলে ১০ হাজার ক্রোনার পর্যন্ত জরিমানা এবং ছয় মাস কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে৷

২০১১ সালে ফ্রান্স প্রথম দেশ হিসেবে নেকাব নিষিদ্ধ করে৷ এরপর বেলজিয়াম, বুলগেরিয়া এবং সুইজারল্যোন্ডে তা নিষিদ্ধ করা হয়৷ নেদারল্যান্ডসে সরকারি দপ্তরগুলোতেও নেকাব নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷

গত এপ্রিলে জার্মানিতে সীমিত আকারে নেকাবে নিষেধাজ্ঞা চালু হয়৷ দেশটির সরকারি কমর্কর্তা এবং সেনা কর্মকর্তাদের জন্য নেকাব ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷

এইচআই/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন