ডিএইট সম্মেলনে শুল্ক বাধা দূর করতে শেখ হাসিনার আহ্বান | বিশ্ব | DW | 09.07.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ডিএইট সম্মেলনে শুল্ক বাধা দূর করতে শেখ হাসিনার আহ্বান

বাংলাদেশের পত্রিকাগুলোতে আজ ভিন্ন ভিন্ন বিষয় মূল শিরোনাম হিসেবে এসেছে৷

Bangladesh Prime Minister Sheikh Hasina

শেখ হাসিনা

যেমন প্রথম আলোর মূল খবর বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালের ম্যাচ৷ তবে দ্বিতীয় মূল খবর হিসেবে এসেছে বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচীতে পুলিশের বাধা প্রদান৷ যুগান্তরের মূল শিরোনাম নিয়ন্ত্রণহীন আইন শৃংখলা পরিস্থিতি৷ সঙ্গে তারা জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমানের একটি সাক্ষাৎকারও ছেপেছে৷ সমকালের খবর, ৫৮ খুনি শনাক্ত, পিলখানা হত্যা মামলার চার্জশিট শিগগিরই৷ এছাড়া ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের বাজেটের খবরটিও তারা বেশ গুরুত্ব দিয়েছে৷ কালের কন্ঠের প্রধান খবর, জামায়াতের মাঠের রাজনীতি স্থবির৷ কালের কণ্ঠ নাইজেরিয়ার ডি এইট সম্মেলনের খবরটিও বেশ গুরুত্ব দিয়ে ছেপেছে৷


আবুজাতে শেখ হাসিনা

বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার বরাত দিয়ে কালের কন্ঠের প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, মোট ২৪ দফা ঘোষণার মধ্য দিয়ে নাইজেরিয়ার রাজধানী আবুজাতে ডি এইট সম্মেলন শেষ হয়েছে৷ ঘোষণায় সদস্য দেশগুলোর মধ্যে বিনিয়োগের সুযোগ অনুসন্ধান এবং অগ্রাধিকারমূলক চুক্তি অনুমোদন ত্বরান্বিত করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়৷ এতে সদস্য দেশগুলোর বেসরকারি খাতের প্রতি উদার বিনিয়োগ নীতি, দক্ষ জনশক্তি এবং কম খরচে বাণিজ্যের সুযোগ গ্রহণের আহ্বান জানানো হয়৷ ইরানের ডি এইট যৌথ বিনিয়োগ তহবিল প্রতিষ্ঠার প্রস্তাবসহ ডি এইট বিনিয়োগ তহবিল প্রতিষ্ঠা এবং সদস্য দেশগুলোতে বিনিয়োগ সুবিধা চিহ্নিত করার ওপরও জোর দেওয়া হয়৷ সম্মেলনে ভাষণ দিতে গিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘‘আমাদের প্রায় ১০০ কোটি মানুষের জন্য একটি সম্মিলিত বাজার থাকলেও বাণিজ্যের চিত্র হতাশাব্যঞ্জক৷ মান সমন্বয় ও মান পরীক্ষায় অভিন্ন পদ্ধতির অভাবের কারণে এই প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়েছে৷'' তিনি এসব বাধা অপসারণের আহ্বান জানান৷

পুলিশের নতুন ১২ নির্দেশনা

প্রথম আলোতে ‘আসামীর প্রতি আচরণ বিষয়ে পুলিশকে ১২ দফা নির্দেশনা' এই শিরোনামে একটি খবর ছাপা হয়েছে৷ এতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি রাজধানীতে পুলিশ হেফাজতে তিন ব্যক্তি মারা যাওয়ার পর এই ঘটনার ব্যাপারে তদন্ত কমিটি গঠনের জন্য হাইকোর্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেয়৷ তবে সেই কমিটি না হলেও মহানগর পুলিশ কমিশনার রাজধানীর সবগুলো থানায় ১২টি নির্দেশনা পাঠিয়েছেন৷ এগুলোর অন্যতম হলো, জিজ্ঞাসাবাদের সময় আসামীকে নির্যাতন করা যাবে না৷ জিজ্ঞাসাবাদের আগে আসামীর শারীরিক অবস্থা জেনে নিতে হবে৷ কাউকে গ্রেফতারের সময় অতিরিক্ত বল প্রয়োগ করা যাবে না৷ কোন পুলিশ আইন ভঙ্গ করলে তার দায় তাকেই নিতে হবে৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

বিজ্ঞাপন