ট্রেনের বিলম্ব কমাতে জার্মান রেলের জোর উদ্যোগ | বিশ্ব | DW | 14.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

ট্রেনের বিলম্ব কমাতে জার্মান রেলের জোর উদ্যোগ

জার্মানির জাতীয় ট্রেন পরিচালকারী সংস্থা ট্রেনের বিলম্ব কমাতে বিশেষ উদ‌্যোগ গ্রহণ করতে যাচ্ছে৷ আগামী গ্রীষ্মের আগে ট্রেনের সব ধরনের বিলম্ব কমাতে একজন শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷

এই উদ্যোগ গ্রহণের আগে  জার্মান রেল কর্তৃপক্ষ ডয়চে বান (ডিবি) এক বিবৃতিতে  স্বীকার করে যে, প্রায় ২৫ শতাংশ ট্রেন যথা সময়ে চালাতে ব্যর্থ তাদের প্রতিষ্ঠান৷

চালকদের মধ্যে নিয়মানুবর্তীতা ফিরিয়ে আনতে টিএসআর ব্যবস্থা চালু করেছে ডিবি৷ এই ব্যবস্থার আওতায় দেরি করা কর্মীদের কঠিন জবাবদিহির আওতায় আনা হবে, নতুবা বরখাস্ত কিংবা সাময়িক বরখাস্ত করা হবে৷

জার্মান জাতীয় দৈনিক বিল্ড-এর রবিবারের সংস্করণ বিল্ড আম জনটাগে প্রকাশিত এক সংবাদ থেকে জানা যায়, জার্মান চ্যান্সেলরের সাবেক চিফ অফ স্টাফ এবং বর্তমানে ডিবি'র অবকাঠামো প্রধান রোনাল্ড পোলাফাকে এই বিলম্ব কমিয়ে আনার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷ এই মুহূর্তে জার্মান ট্রেনের বিলম্ব অবিশ্বাস্যরকম বেড়েছে৷ কর্তৃপক্ষ পরিস্থিতিকে ‘জঘন্য' বলে আখ্যা দিয়েছে৷

দায়িত্ব গ্রহণের পর পরই পোলাফা জার্মান প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের উপস্থিতিতে রেল প্রধানদের এক বৈঠক ডেকেছেন৷ চলতি সপ্তাহেই এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে৷

গত আগস্ট মাসে প্রকাশ করা ডিবি'র এক বিবৃতি থেকে জানা যায়, সবসময়ই ডিবি'র ৯৫ শতাংশ ট্রেন যথাসময়ে গন্তব্যে পৌঁছেছে৷ তবে গত ১ বছরে পরিস্থিতি খারাপ হয়েছে৷ এ সময়ে ডিবির ২৫ শতাংশ ট্রেন বিলম্ব করেছে৷ এই ২৫ শতাংশের মধ্যে তিনভাগই দেশটির সবচেয়ে উচ্চগতিশীল আইসিই ট্রেন৷

জার্মান প্রশাসন থেকে বলা হয়েছে, সময়ানুবর্তিতা নিয়ে এই দেশের যে সুনাম ও ঐতিহ্য রয়েছে, ট্রেনের বিলম্বের হার বেড়ে যাওয়ায় সেটি ভাঙতে বসেছে৷

এর আগে ২০১৫ সালে ‘ফিউচার ট্রেন'-এর উদ্যোগ নেওয়ার সময় বলা হয়েছিল, যাবতীয় বিলম্বের ঘটনা কমে যাবে৷ কিন্তু গত তিন বছরে পরিস্থিতি খারাপ থেকে খারাপতর হয়েছে৷

এফএ/এসিবি (ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন