টেনিস বল দিয়ে বোমার ভয় দেখানোর চেষ্টা! | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 20.05.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

টেনিস বল দিয়ে বোমার ভয় দেখানোর চেষ্টা!

মালিকের কাছ থেকে টাকা আদায় করতে বোমার ভয় দেখিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছেন এক গাড়িচালক৷ তার ব্যাগে পাওয়া গেছে টেপ মোড়ানো হাতবোমার মতো দেখতে টেনিস বল ও শসা৷

গাড়িচালক ইব্রাহিম

গাড়িচালক ইব্রাহিম

ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে মোহাম্মদপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ জানান,  রাজধানীর লালমাটিয়ার লাকী অ্যাপাটমেন্টের নীচতলা থেকে বিচারকের গাড়িচালক ৩৫ বছর বয়সি কাজী ইব্রাহিমকে বুধবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়৷

পুলিশের মোহাম্মদপুর জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার রওশনুল হক সৈকত বিডিনিউজকে জানান, মোশতাক আহমেদ নামের এক অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ তার গাড়িচালক ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে গাড়ির কাগজ চুরির অভিযোগে মামলা করেন৷ ইব্রাহিমের দাবিম তার ১০ মাসের বেতন বাকি রয়েছে৷ বেতনের টাকা দেওয়ার কথা বলে তাকে বুধবার রাতে বিচারকের বাসায় আসতে বলা হয়৷

"লালমাটিয়ার বিচারকের ভবনের নীচতলায় আসার সাথে সাথে আগে থেকে অবস্থান নিয়ে থাকা পুলিশ সদস্যরা তাকে গ্রেপ্তার করেন৷ এ সময় তার ব্যাগে বোমা আছে বলে দাবি করে৷ পরে বোমা নিষ্ক্রিয় দল ব্যাগের মধ্যে লাল টেপ দিয়ে মোড়ানো ককটেলের মতো ছয়টি বস্তু পায়, সেগুলো আসলে টেনিস বল এবং দুইটি শসা৷  মালিককে ‘বোমার' ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় করাই ইব্রাহিমের উদ্দেশ্য ছিল বলে পুলিশকে জানিয়েছেন তিনি৷

Bangladesch Autofahrer festgenommen wegen angebliche Handbombe

লাল টেপ দিয়ে মোড়ানো টেনিস বল ও শসা

অবসরপ্রাপ্ত বিচারক মোশতাক আহমেদের দাবি, ইব্রাহিম কখনোই ১০ মাস চাকরি করেননি৷ তাকে প্রায় সাত মাস আগে ব্যক্তিগত গাড়িচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় এবং কোনো বেতন বকেয়া নেই৷ কিন্তু করোনার কারণে তেমন বের না হওয়ায় ইব্রাহিমকে গরুর খামার দেখভাল করার দায়িত্ব দেওয়া হয়৷ মোশতাক আহমেদ বলেন, "আমার এই গরুর খামারের কর্মচারীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে দেওয়ার নামে বিভিন্নভাবে সে টাকা আত্মসাৎ করে আসছিল৷ এই অভিযোগ পাওয়ার পর তাকে সেখান থেকে সরিয়ে দেওয়ায় গাড়ির মূল কাগজ চুরি করে এবং ১০ মাসের বেতন না দিলে কাগজ ফেরত না দেওয়ার হুমকি দেয়৷''

চুরির অভিযোগে দায়ের করা মামলার পর পুলিশ ইব্রাহিমকে খুঁজে না পাওয়ায় আরেকজনের মাধ্যমে বেতন দেওয়ার কথা বলে বাসায় আসতে বলেন বিচারক৷ এবং এরপরেই তাকে গ্রেপ্তার হয়৷ 

এনএস/এসিবি (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়