টিভি বেশি দেখা শিশুদের পরিবর্তী জীবনের জন্য হুমকি | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 21.04.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

টিভি বেশি দেখা শিশুদের পরিবর্তী জীবনের জন্য হুমকি

আপনার সন্তানের বয়স কী ছয়-সাত বছর? সে কী অনেক বেশি টেলিভিশন দেখে? তাহলে তাকে বলুন সেটা থেকে বিরত থাকতে৷ কারণ নইলে হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস - এগুলোই হবে আপনার সন্তানের পরবর্তী জীবনের পরিণতি৷

default

বাবামা'র উচিত তাদের সন্তানকে বেশি বেশি খেলাধুলায় উৎসাহিত করা (ফাইল ফটো)

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় জানা গেছে এই তথ্য৷ অস্ট্রেলিয়ার ‘ওয়েস্টমিড মিলেনিয়াম ইনস্টিটিউট' এর সেন্টার ফর ভিশন রিসার্চ'এ বিজ্ঞানীরা এই গবেষণাটি করেছেন৷ সিডনির ৩৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় দেড় হাজার শিশুর উপর গবেষণাটি পরিচালিত হয়েছে৷ যাদের সবার বয়স ছয় থেকে সাত বছর৷

এরা গড়ে প্রতিদিন প্রায় দুই ঘন্টা করে টিভি দেখেছে৷ আবার কেউ প্রতিদিন গড়ে ৩৬ মিনিট করে শারীরিক পরিশ্রম করেছে৷ গবেষণায় দেখা গেছে, যারা এক ঘন্টার বেশি পরিশ্রম করেছে তারা, যারা এক ঘন্টার কম পরিশ্রম করেছে তাদের চেয়ে সুস্থ, সুন্দর জীবন যাপন করছে৷

হৃদরোগ বিষয়ে অ্যামেরিকার একটি সাময়িকীতে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে৷

গবেষক দলের প্রধান ছিলেন ড. বামিনি গোপীনাথ৷ তিনি বলছেন বাবামা'র উচিত তাদের সন্তানকে বেশি বেশি খেলাধুলায় উৎসাহিত করা৷

ড. গোপীনাথ বলেন, টিভি বেশি দেখার মানে হলো কম পরিশ্রম আর অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া৷ ফলে শরীরের ওজন যায় বেড়ে৷ যার পরিণতি হৃদরোগ আর উচ্চ রক্তচাপ৷ কারণ টিভি বেশি দেখায় শিশুদের চোখের পেছনের ধমনিগুলো সরু হয়ে যায়৷

তিনি বলেন, প্রতিদিন দু'ঘন্টা করে টিভি দেখার বদলে যদি একঘন্টা অনুশীলন করা যায় তাহলে সেটা ভাল ফল দেবে৷ তাই মুক্ত খেলাধুলার প্রতি শিশুদের উৎসাহিত করতে হবে৷ এজন্য প্রতিটি স্কুলে সপ্তাহে দুঘন্টা করে বাচ্চাদের শারীরিক পরিশ্রম করানো বাধ্যতামূলক করার পরামর্শ দিয়েছেন ড. গোপিনাথ৷

তাহলে এবার আপনি ভেবে দেখুন আপনার সন্তানের জন্য আপনি কী করবেন?

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়