টিকা নিয়ে সবাই মুলা দেখাচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 23.06.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

টিকা নিয়ে সবাই মুলা দেখাচ্ছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ধনী দেশগুলো দরিদ্র দেশগুলোকে টিকা দেওয়ার আশ্বাস দিলেও তা দৃশ্যমান না হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন৷ যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে মঙ্গলবার এসব কথা জানান তিনি৷

পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন

ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রতিবেদন অনুযায়ী পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘‘টিকা নিয়ে বড় বড় পণ্ডিতেরা কত কি বললেন না? এই যে, জি-৭ দেশগুলো কিছুদিন আগে বৈঠক করে বলেছে, তারা ১০০ কোটি ডোজ টিকা দরিদ্র দেশগুলোকে দেবে৷ এ নিয়ে শুধু গল্পই শুনতেছি কিন্তু দেওয়ার জন্য তো কোনো আগ্রহ দেখি না৷ আমি বলি মুলা দেখাচ্ছে সবাই৷ তবে টিকার জন্য আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছি৷’’

যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে মঙ্গলবার দুপুরে মন্ত্রণালয়ে নিজের কক্ষে টিকা প্রাপ্তি নিয়ে সর্বশেষ অবস্থা জানাতে গিয়ে এরকম মন্তব্য করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী৷

টিকা নিয়ে কোনো সুখবর আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘আশ্বাস দিয়ে যাচ্ছে সবাই৷ সবচেয়ে বড় সমাধান হবে যখন আমরা টিকা তৈরি করব৷ নিজেরা টিকা তৈরি করলে আর অন্যের দিকে চেয়ে থাকতে হবে না৷’’

‘‘ধনী দেশগুলো টিকা নিয়ে বসে রয়েছে৷ তাদের যত জনসংখ্যা তার থেকে তাদের কাছে টিকা বেশি রয়েছে৷ টিকা এখন দর কষাকষির অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে৷’’

তিনি বলেন, ‘‘ভ্যাকসিন একটা মজার জিনিস৷ সবাই আমাদের কাছে টিকা বিক্রির জন্য আসছে৷ সাংবাদিক, সাহিত্যিক, গায়ক, ব্যবসায়ী সবাই এখন টিকা ব্যবসায়ী৷

‘‘অনেকে বলে টিকা দেব, কিন্তু কেউ দেয় না৷ আবার দেওয়ার সময় জিজ্ঞাসা করে যে, অমুক জিনিসে আমাকে সমর্থন দেবেন কিনা৷ এখন দেখা যাচ্ছে, এটিকে একটি অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে৷’’

এ বিষয়ে উদাহরণ দিতে গিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘‘একটা মজার কাহিনী বলি- আমেরিকার অনেক ব্যক্তিবিশেষ আমাদের জানিয়েছেন, অমুক লোক অনেক টিকা দিতে পারবেন ৷ তারা রাশিয়ান টিকার ডিলারশিপ পেয়েছে ৷ কিন্তু রাশিয়া সরকার আমাদের জানিয়েছে, তাদের কোনো ডিলারই নাই৷’’

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে অন্য টিকার পাশাপাশি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকার টিকাও সরবরাহ করবে বলে আশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘‘উন্নত দেশগুলো প্রয়োজনের বেশি ভ্যাকসিন নিয়ে বসে আছে৷ সেজন্য তাদের বলেছি, বাড়তি ভ্যাকসিন নষ্ট না করে আমাদের দিয়ে সহযোগিতা করতে৷’’

‘‘যুক্তরাষ্ট্রের কাছে অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রোজেনেকার ২০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন আগেই চেয়েছি৷ আমরা আশাবাদী তারা আমাদের এটা দেবে৷’’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘‘অনেক ধনী দেশই মিয়ানমারের সঙ্গে বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে৷ তারা মুখে মুখে মানবতার কথা বললেও গত ৪ বছরে মিয়ানমারের সঙ্গে ৩ থেকে ১৫ শতাংশ বাণিজ্য বাড়িয়েছে৷’’

‘অনেক ধনী দেশ ২৪ বিলিয়ন ডলারের ব্যাংক গ্যারান্টি’ দিয়েছে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী৷

এনএস/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম) 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়