ঝুঁকির মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ২ কোটি শিশু: ইউনিসেফ | বিশ্ব | DW | 05.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

ঝুঁকির মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ২ কোটি শিশু: ইউনিসেফ

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট দুর্যোগের কারণে ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে প্রায় দুই কোটি বাংলাদেশি শিশুর জীবন ও ভবিষ্যত - শুক্রবার জাতিসংঘ শিশু তহবিল, ইউনিসেফের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এমন তথ্য৷

ইউনিসেফ জানিয়েছে, বন্যা, ঘূর্ণিঝড় ও অন্যান্য দুর্যোগের কারণে বাংলাদেশে ঝুঁকির মধ্যে থাকা মোট শিশুর সংখ্যা ১ কোটি ৯০ লাখ৷ কক্সবাজারের বিশৃঙ্খল ও নোংরা ক্যাম্পগুলোতে বাস করা হাজার হাজার রোহিঙ্গা শিশুকেও এই প্রতিবেদনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে৷

প্রতিবেদনে বলা হয়, উপকূলীয় অঞ্চলের জমিতে লবণাক্ততা বেড়ে যাওয়া, বন্যা এবং নদী ভাঙনের কারণে অনেক মানুষ শহরে পাড়ি জমাচ্ছেন৷ যৌনকর্মের জন্য পাচার এবং জোর করে বিয়ে দেওয়ার তথ্যও তুলে ধরা হয়েছে ওই প্রতিবেদনে৷

মোট শিশুদের মধ্যে‌ প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ উপকূলীয় অঞ্চলে জলোচ্ছ্বাসের কারণে বিপদাপন্ন অবস্থায় আছে বলে জানাচ্ছেন বাংলাদেশে ইউনিসেফের মুখপাত্র জ্য জ্যাক সিমন৷ ‘‘প্রতিদিন পরিবারের সঙ্গে হাজার হাজার শিশু বড় শহরগুলোতে পাড়ি জমাচ্ছে৷ সব ধরনের নিপীড়নের আশঙ্কার মধ্যে রয়েছে তারা,'' এপিকে বলেন তিনি৷

উপকূলীয় এলাকায় প্রায় ৪৫ লাখ শিশু ঘূর্ণিঝড়ের ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করে৷ আর বাঁশ ও প্লাস্টিকের ভঙ্গুর আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করছে প্রায় ৫ লাখ রোহিঙ্গা শিশু৷ অন্যদিকে ৩০ লাখ শিশু এমন অবস্থায় বসবাস করছে, যেখানে প্রতিনিয়ত খরার মুখোমুখি হতে হয়৷

বাংলাদেশে বর্তমানের ৬০ লাখ জলবায়ু শরণার্থীর সংখ্যা ২০৫০ সালে দ্বিগুণ হয়ে যেতে পারে বলে ইউনিসেফের প্রতিবেদনে ধারণা দেয়া হয়েছে৷

লন্ডনভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল ‘ইনস্টিটিউট ফর ইনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ডেভেলপনমেন্ট' এর জ্যেষ্ঠ ফেলো সালিমুল হক বলেন, ‘‘জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকিটা বাস্তব৷ জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ-খাওয়ানোর ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ভালো করলেও এর ভয়াবহতা শিশুদের ঝুঁকির মধ্যেই রাখছে৷''

দুর্যোগের ক্ষেত্রে অতীতে বাংলাদেশের বাজে অভিজ্ঞতা রয়েছে৷ ঘূর্ণিঝড়ে ১৯৭০ সালে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে ৩ লাখ এবং ১৯৯১ সালের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে ১ লাখ ৩৮ হাজার মানুষের প্রাণহানি ঘটেছিল৷ তবে ১৯৯০ সালের পর থেকে দুর্যোগ মোকাবিলায় নানা উদ্যোগের কারণে ঝুঁকি মোকাবিলায় মানুষের সক্ষমতা বেড়েছে৷

গত মাসে বাংলাদেশে সফরে যান ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিয়েটা ফোর৷ ইউনিসেফের প্রতিবেদনে বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি নিয়ে তাঁর একটি বক্তব্যও স্থান পেয়েছে৷

তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পরিবেশগত ঝুঁকিকে আরো খারাপ করছে জলবায়ু পরিবর্তন৷ অভিভাবকরা তাঁদের শিশুদেরকে ঠিকমতো বাসস্থান, খাদ্য, চিকিৎসা ও শিক্ষা দিতে পারছেন না৷ জলবায়ু পরিবর্তন শিশুর বেঁচে থাকা ও উন্নতির ক্ষেত্রে বিভিন্ন দেশের উদ্যোগকেও বাধাগ্রস্ত করছে৷''

এমবি/জেডএইচ (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন