জয়ের আশা জাগিয়ে হেরে গেল বাংলাদেশ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 19.11.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ক্রিকেট

জয়ের আশা জাগিয়ে হেরে গেল বাংলাদেশ

১২৭ রানের পুঁজি নিয়েও বোলারদের নৈপুণ্যে জয়ের আশা জেগেছিল বাংলাদেশের৷ কিন্তু শেষ রক্ষা করতে পারেনি মাহমুদউল্লাহর দল৷

১৫ বলে ৩৬ রানের জুটিতে পাকিস্তানের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন শাদাব খান ও মোহাম্মদ নওয়াজ

১৫ বলে ৩৬ রানের জুটিতে পাকিস্তানের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন শাদাব খান ও মোহাম্মদ নওয়াজ

শেষ দিকে ছোট্ট কিন্তু কার্যকর দুটি ইনিংসে ব্যবধান গড়ে দিলেন শাদাব খান ও মোহাম্মদ নওয়াজ৷ তাদের ব্যাটে জয় দিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু করল পাকিস্তান৷

শেষ তিন ওভারে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ৩২ রান৷ তখনও সম্ভাবনা ভালোভাবেই বেঁচে ছিল বাংলাদেশের৷ কিন্তু শেষ দিকে প্রত্যাশা মেটাতে পারেননি মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম৷ দুই বাঁহাতি পেসারই দেন ১৫ রান করে৷ শেষ ওভারটি করতে এসে দ্বিতীয় বলে আমিনুল ইসলাম হজম করেন ছক্কা৷

স্রেফ ১৫ বলে ৩৬ রানের জুটিতে ব্যবধান গড়ে দেন শাদাব খান ও মোহাম্মদ নওয়াজ৷ ছক্কায় ম্যাচ শেষ করা শাদাব করেন ১০ বলে ২১, নওয়াজ করেন ৮ বলে ১৮৷ দুই জনেরই ইনিংসে দুই ছক্কার পাশে একটি চার৷ 

মুস্তাফিজুর রহমান

দারুণ ডেলিভারিতে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে বোল্ড করেন মুস্তাফিজুর রহমান

এর আগে ১২৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানের ২৪ রানে চার উইকেট তুলে পাকিস্তানকে চাপে ফেলেন মুস্তাফিজ, তাসকিন, মেহেদীরা৷ তবে ফখর-খুশদিলের অর্ধশত পেরুনো জুটিতে প্রাথমিক ধাক্কা সামলে নেয় পাকিস্তান৷ ফখরকে তাসকিন ও খুশদিলকে শরিফুল থামালেও তা জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল না৷

এদিকে দিনের শুরুতে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ৷ প্রথম তিন ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরেন মাত্র ১৫ রানে৷ সুবিধা করতে পারেননি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও৷ ১১ বলে ছয় রানে তিনি বোল্ড হয়েছেন নওয়াজের বলে৷ তবে ৩৪ বলে আফিফের ৩৬, নুরুল হাসানের ২২ বলে ২৮ ও মেহেদী হাসানের শেষদিকে ২০ বলে ৩০ রানের লড়াকু ইনিংসে সাত উইকেটে ১২৭ রান তোলে বাংলাদেশ৷ পাকিস্তানের পক্ষে সর্বোচ্চ তিন উইকেট নিয়েছেন পেসার হাসান আলী৷ ম্যান অব দ্য ম্যাচও তিনি৷ 

আফিফ হোসেন

৩৪ বলে ৩৬ রান করার পথে আফিফ হোসেনের একটি শট

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ২০ ওভারে ১২৭/ (নাঈম ১, সাইফ ১, শান্ত ৭, আফিফ ৩৬, মাহমুদউল্লাহ ৬, সোহান ২৮, মেহেদি ৩০*, আমিনুল ২, তাসকিন ৮*; নওয়াজ ৪-০-২৭-১, হাসান ৪-০-২২-৩, ওয়াসিম জুনিয়র ৪-০-২৪-২, রউফ ৪-০-৩৩-০, শাদাব ৪-১-২০-১)

পাকিস্তান: ১৯.২ ওভারে ১৩২/৬ (রিজওয়ান ১১, বাবর ৭, ফখর ৩৪, হায়দার ০, মালিক ০, খুশদিল ৩৪, শাদাব ২১*, নওয়াজ ১৮*; মেহেদি ৪-০-১৭-১, তাসকিন ৪-০-৩১-২, মুস্তাফিজ ৪-০-২৬-১, শরিফুল ৪-০-৩১-১, মাহমুদউল্লাহ ৩-০-১৯-০, আমিনুল ০.২-০-৬-০ )

এনএস/এফএস (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, ইএসপিএন ক্রিকইনফো)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়