জেলিফিশ দিয়ে  চিপস | অন্বেষণ | DW | 22.10.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

জেলিফিশ দিয়ে  চিপস

হড়হড়ে, আঠালো সামুদ্রিক প্রাণী হিসেবেই জেলিফিশ পরিচিত৷ ডেনমার্কের এক বিশেষজ্ঞ সেই জেলিফিশ দিয়ে সুস্বাদু চিপস তৈরি করার কাজ করছেন৷ নাস্তা হিসেবে এই খাদ্য জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারে৷

অচেনা এক খাদ্য খেয়ে মানুষের নানারকম প্রতিক্রিয়া শোনা গেল৷ কেউ বলেন, মুখে দিলে গলে যায়, অনেকটা মাছের মতো খেতে৷ কেউ বলেন লবণাক্ত৷ মুখে দিলে অবশ্য আলুর মতো খেতে লাগে৷ সুস্বাদু এই স্ন্যাক বা নাস্তা জেলিফিশ দিয়ে তৈরি৷ কয়েক দিন আগে ডেনমার্কের উপকূলে সেগুলি ধরা হয়েছে৷

কাঁচা অবস্থায়ও কি সেগুলি সুস্বাদু হতে পারে? গ্যাস্ট্রো-পদার্থবিজ্ঞানী মি টোরবর্গ পেডেরসেন বলেন, ‘‘এমন আঠালো কিছু আমি পছন্দ করি না৷ তবে সেগুলি দিয়ে সুস্বাদু রান্না করার পথ আমরা খুঁজে পেয়েছি৷''

গ্যাস্ট্রো-পদার্থবিজ্ঞানী হিসেবে মি টোরবর্গ পেডেরসেন মচমচে জেলিফিশ চিপস তৈরি করার প্রক্রিয়া সৃষ্টি করেছেন৷ কিন্তু এর জন্য মুন জেলিফিশ বেছে নেবার কারণ কী? পেডেরসেন ব্যাখ্যা করে বলেন, ‘‘এই প্রজাতি এখানেই পাওয়া যায়, ফলে তাদের ধরাও সহজ৷ তাছাড়া এগুলি মানুষের জন্য বিষাক্ত নয়, তাই বিনা সমস্যায় খাওয়া চলে৷''

থলথলে জেলিফিশ থেকে মচমচে চিপস তৈরিকরতে হলে সবার আগে তাদের শরীর থেকে পানি দূর করতে হয়৷ তার জন্য সেগুলি অ্যালকোহলে ভিজিয়ে রাখতে হয়৷ অ্যালকোহল জেলিফিশের শরীরের কাঠামো নষ্ট করে দেয়৷ ফলে শরীর ভেঙে পানি বেরিয়ে আসে৷ তবে অ্যালকোহলে ডোবানোর আগে পেডেরসেন নিশ্চিত হতে জেলিফিশের পেট পরীক্ষা করেন৷ সেটি খালি ও পরিষ্কার থাকতে হবে৷

স্বাস্থ্যবিধিসম্মত কারণে সেটাও কোনো সমস্যা নয়৷ কারণ, অ্যালকোহল শুধু জেলিফিশের মৃত্যু নিশ্চিত করে না৷ দুই দিন অ্যালকোহলে ভিজিয়ে রাখার পর পানি বেরিয়ে যায়৷ তখন রান্নার জন্য পরবর্তী প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব৷ পেডেরসেন বলেন, ‘‘দেখা যাচ্ছে, অ্যালকোহলের কারণে এটি দুধের মতো দেখতে হয়ে গেছে৷ ছুঁলে রবারের মতো মনে হবে৷''

এবার জেলিফিশ শুধু শুকাতে হবে৷ পেডেরসেন সাধারণ ওভেন ব্যবহার করেই সেই কাজ সারেন৷ এই ধরনের ওভেনে সাধারণত শুকনা ফল তৈরি করা হয়৷ ঘণ্টাখানেক পর অ্যালকোহল উবে গিয়ে জেলিফিশ চিপস প্রস্তুত হয়ে যায়৷ সেই চিপস কেমন খেতে? মি টোরবর্গ পেডেরসেন সেটি চেখে দেখে বলেন, ‘‘একটু লবণাক্ত ও তাতে সমুদ্রের স্বাদ পাওয়া যায়৷ তবে মুখের মধ্যে যে অনুভূতি হয়, তা সত্যি অনবদ্য৷ সামান্য মচমচে এই খাবার দ্রুত উধাও হয়ে যায়৷''

জেলিফিশের স্বাদ বাড়াতে পেডেরসেন এর মধ্যে নানা রকম উপকরণ অ্যালকোহলে ভিজিয়ে পরীক্ষা করছেন৷ যেমন কমন সি বাকথর্ন নামের উদ্ভিদ৷

ভবিষ্যতে হয়তো পার্টির স্ন্যাক খাদ্য হিসেবে জেলিফিশের সমাদর বাড়বে৷

উলরিশ গ্র্যুনেভাল্ড/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

বিজ্ঞাপন