জুতো আর ব্যাগে ফিরছে কালো রং | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 13.08.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

জুতো আর ব্যাগে ফিরছে কালো রং

জার্মানিতে শীত ফিরতে বেশি দেরি নেই৷ গ্রীষ্মের যেমন প্রখর রোদের দেখা মেলে এই দেশে, শীতে তেমনি তীব্র ঠাণ্ডা৷ ফলে আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে চলতে পোশাকে ব্যাপক পরিবর্তন আনেন জার্মানরা৷

অধিকাংশ জার্মানই সুগঠিত দেহের অধিকারী৷ বিশেষ করে তরুণ-যুবারা যথেষ্ট স্বাস্থ্য সচেতন, পোশাক সচেতন৷ আর এটাই ব্যবসায়ীদের বড় সুবিধা৷ একেকটি মৌসুম ধরে দোকান সাজান তারা৷ আগামী শীতে জুতা আর ব্যাগের জন্য তারা বেছে নিয়েছেন কালো এবং ছাই রং৷ এজন্য অবশ্য রীতিমত গবেষণা করেছেন ফ্যাশন বিশেষজ্ঞরা৷

জার্মানির জুতা ইন্সটিটিউট (ডিএসআই)-এর ফ্যাশন বিশ্লেষক ক্লাউডিয়া শুলৎস মনে করেন, এই শীতে কালো রং অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসের প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হবে৷ পাশাপাশি উষ্ণ রংগুলোও গুরুত্ব পাবে৷

বিশেষজ্ঞদের মতে, কালোর প্রতি মানুষের আগ্রহ বোঝা যাচ্ছিল গত বছর থেকেই৷ অথচ আগের বছরগুলোতে রঙিন জুতা আর ব্যাগের চল ছিল বেশি৷ ক্রেতার মানসিকতার এই পরিবর্তন বুঝতে পেরেছেন ফ্যাশন বিশেষজ্ঞরা৷ তাই এবার পুরোদস্তুর ফিরে আসছে কালো৷

Symbolbild Menschenhandel Prostitution

মেয়েদের কালো জুতো

মেয়েদের ফ্যাশনের ক্ষেত্রেও পরিবর্তন চোখে পড়ছে৷ এই শীতে ‘অ্যাংকেল-হাই' জুতার পাশাপাশি বাজারে থাকবে পশমে বোনা জুতা৷ মেয়েদের পছন্দের তালিকায় এই দু'ধরনের জুতাই থাকছে৷ পোশাকের দিকে চিন্তা করলে ছাল ওঠা, দেখতে পুরনো কাপড়চোপড়ের দিকেই ঝোঁক মেয়েদের৷ সবমিলিয়ে আসন্ন শীতে বেশ একটা উগ্র ভাব ফুটে উঠবে মেয়েদের পোশাকে, এমনটাই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা৷

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের প্রথম কয়েকমাস জুতা বিক্রেতার জন্য খুব একটা লাভজনক ছিল না৷ কারণটাও প্রকৃতি৷ এবছর বৃষ্টিপাত একটু বেশিই হয়েছে৷ আর সিক্ত আবহাওয়ার কারণে জুতা বিক্রি হয়েছে কম৷ তবে আসন্ন শীত নিয়ে জুতা ব্যবসায়ীরা আশাবাদী, বলেন জিএসআই কর্মকর্তা মানফ্রেড ইয়ুংকার্ট৷

উল্লেখ্য, ইউরোপে বিক্রি হওয়া অধিকাংশ জুতাই তৈরি হয় ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরের দেশগুলোতে৷ এক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে এশিয়া৷ গোটা বিশ্বে বিক্রি হওয়া জুতার আশি শতাংশই তৈরি হয় এশিয়ায়৷

এআই / এসবি (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন