জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে! | বিশ্ব | DW | 09.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে!

গেল নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ বিষয়ে ট্রাম্পকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন ফেডারেল তদন্ত সংস্থার বিশেষ কাউন্সেল রবার্ট মালার৷ ট্রাম্প কোনো ‘অন্যায়ে' জড়িয়েছিলেন কি না তা-ই যাচাই করা হবে৷

এরই মধ্যে মালার প্রেসিডেন্টের সাক্ষাৎ চেয়েছেন বলে জানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম৷ এনবিসি নিউজ সবার আগে এমন একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে৷ পরে ওয়াশিংটন পোস্টসহ অন্যান্য গণমাধ্যম বিষয়টি নিশ্চিত করেছে৷

পত্রিকার প্রতিবেদন অনুযায়ী, তদন্তকারীদের সব রকমের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন ট্রাম্প৷ তবে জিজ্ঞাসাবাদ যেন নির্দিষ্ট গন্ডির মধ্যেই থাকে, সে বিষয়ে সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন ট্রাম্পের আইনজীবীরা৷ জিজ্ঞাসাবাদ ‘অতি দ্রুত' হবে বলে জানিয়েছে পত্রিকাগুলো৷

এদিকে, এ ঘটনায় হতাশা ছড়িয়ে পড়েছে হোয়াইট হাউসে৷ হোয়াইট হাউস এতদিন ভাবেনি যে, তদন্ত ২০১৮ পর্যন্ত টেনে নেবেন মালার৷ এর আগে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা দলের তিনজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে৷

প্রচারণা দলের সাবেক যোগাযোগ বিষয়ক প্রধান পল ম্যানাফর্ট তো বলেই দিয়েছিলেন যে, মালার তার এখতিয়ার লঙ্ঘন করছেন৷

এদিকে, হোয়াইট হাউসের দূত টাই কব ও ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী জে সেকুলো চাইছেন, মালার যেন প্রশ্নগুলো আগেভাগে দিয়ে দেন, অথবা সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প যেন প্রশ্নের লিখিত উত্তর দিতে পারেন৷

এদিকে, এই সাক্ষাৎকারের সঙ্গে জড়িত একজনের বরাত দিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট বলেছে যে, প্রেসিডেন্টের জন্য আলাদা নিয়ম তৈরির কোনো আগ্রহ মালারের নেই৷ বিশেষ করে, সাবেক এফবিআই পরিচালক জেমস কোমি প্রসঙ্গে৷ গত বছরের মে মাসে তাঁকে বরখাস্ত করেন ট্রাম্প৷

তখন থেকেই কোমি বলে আসছেন যে, প্রেসিডেন্ট তাঁকে সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন ও রাশিয়ার কর্মকর্তাদের মধ্যে কোনো যোগসাজশ আছে কিনা তা তদন্ত করতে নিষেধ করেছিলেন৷

মাইকেল শুমাখার/জেডএ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন