‌জার্মান শিক্ষার অর্ধশতক | বিশ্ব | DW | 31.08.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

‌জার্মান শিক্ষার অর্ধশতক

জার্মান ভাষা শেখানোর বৃত্তিতে ৫০ বছর পূর্ণ করলেন কলকাতার সুনন্দা বসু৷ শুধুই ভাষা শেখানো নয়, জার্মানি দেশটি সম্পর্কে পড়ুয়াদের আগ্রহ উসকে দেওয়ার কাজটিও তিনি করে চলেছেন সুচারুভাবে৷

কলকাতার জার্মান ভাষা শিক্ষিকা সুনন্দা বসু'র শিক্ষয়িত্রী জীবনের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বাংলার এক বহুল প্রচারিত দৈনিক একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে৷ সেটি পড়ে ফেসবুকে শেয়ার করেছেন সুনন্দাদেবীর বোনঝি, দীর্ঘদিন জার্মানি প্রবাসী যশোমতী মুখার্জি৷ পুনের গ্যোটে ইনস্টিটিউটে জার্মান ভাষাশিক্ষার ছাত্রী ছিলেন যশোমতী, যেখানে সুনন্দাদেবী একসময় শিক্ষকতা করেছেন৷ কিছু বছর আগের এক স্মৃতি এই প্রসঙ্গে এসেছে যশোমতীর ফেসবুকের লেখায়৷ বন শহরে গেছেন সুনন্দা বসু, আছেন এক জার্মান বন্ধুর বাড়িতে, সেখানে দেখা করতে গেছেন যশোমতী৷ মাসির জার্মান বন্ধুর সঙ্গে জার্মান ভাষাতেই কথা বলতে হচ্ছে তাঁকে৷ কিন্তু সারাক্ষণ অস্বস্তিতে আছেন, যে কথা বলার সময় তাঁর যা যা ভুল হচ্ছে, শিক্ষয়িত্রী হিসেবে বরাবরই খুব কড়া তাঁর মেজোমাসি নির্ঘাত মনে মনে টুকে নিচ্ছেন৷ কার্যত হয়েছিলও তাই৷ বাইরে বেরিয়েই বোনঝিকে মাসির প্রথম কথা— ওই শব্দের উচ্চারণটা তোমার ভুল হয়েছে৷

অডিও শুনুন 01:29

‘‘সেটা সুনন্দাদির ক্ষেত্রে খুবই ঘটেছে’’

 

সুনন্দা বসুর যাঁরা ছাত্র-ছাত্রী, যাঁরা সবাই এখন নিজস্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত এবং যাঁদের অনেকেই জার্মানি প্রবাসী, তাঁরা সকলে ঠিক এভাবেই স্মরণ করেন তাঁদের শিক্ষয়িত্রীকে৷ তাঁরা মনে করেন, শুধু একটা বিদেশি ভাষা শেখানোই নয়, ওই দেশটির শিল্প, সাহিত্য, সঙ্গীত, থিয়েটার এবং সিনেমা সম্পর্কেও ছাত্র-ছাত্রীদের অবিরত জানিয়ে গেছেন সুনন্দা বসু৷ কারণ, তিনি মনে করেছেন, একটা অন্য দেশের ভাষা শিখতে হলে সেই দেশটা সম্পর্কেও জানতে হবে৷ বুঝতে হবে সেই দেশের মানসিকতা৷ ঠিক যে কথাটা বলছিলেন রাজু রামন৷ কলকাতার গ্যোটে ইনস্টিটিউটের প্রাক্তন সাংস্কৃতিক অধিকর্তা৷ তিনি যে সময় দায়িত্বে, সেই সময়ই ওখানে জার্মান ভাষার ক্লাস নিয়েছেন সুনন্দাদেবী৷ রামন ডয়চে ভেলেকে বললেন যে, তাঁর ব্যক্তিগতভাবে মনে হয়, ‘‌‘‌যে কোনো ভাষার ওপর দখল রাখতে গেলে, সেই ভাষার যে দেশটি, তার সম্পর্কেও জানা দরকার৷ সংস্কৃতি, ভাষা এবং সাহিত্য, এবং ওই দেশের লোকেদের চিন্তাধারা, এগুলোর একসঙ্গে যদি একটা সামঞ্জস্য না ঘটে, তা হলে কিন্তু সেই ভাষার ওপর সেরকম দখল থাকা সম্ভব নয়৷ এবং এত বছর ধরে৷ সেটা সুনন্দাদির ক্ষেত্রে খুবই ঘটেছে৷'‌'‌

সুনন্দা বসু ছিলেন দর্শনের ছাত্রী৷ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে পড়ার সময় শঙ্করাচার্যের বেদান্ত ভাষ্যের একটি জটিল সূত্র ব্যাখ্যা করার সময় তাঁর অধ্যাপক একটিমাত্র জার্মান শব্দে গোটা সূত্রটি কীভাবে প্রতিভাত হয়, সেটা বলেছিলেন৷ জার্মান ভাষা সম্পর্কে সুনন্দাদেবীর আগ্রহের সেই শুরু৷ তার আগে থেকেই জার্মান সংস্কৃতি, বিশেষত জার্মান সিনেমা এবং ধ্রুপদী সংগীতের সঙ্গে পরিচয় ছিল৷ এবার সরাসরি ভাষাটি শিখতে সুনন্দাদেবী চলে যান পুনে শহরের গ্যোটে ইনস্টিটিউটে৷ জার্মান ভাষার পাঠক্রম শেষ করার পর সেখানেই যোগ দেন জার্মান ভাষা শিক্ষিকা হিসেবে৷ কেমন ছিল প্রথম দিনের ক্লাস নেওয়ার অভিজ্ঞতা?‌ সুনন্দা বসু ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছেন, ‘‌‘সেটা একটা অদ্ভুত ধরনের অনুভূতি, কারণ, তার দশ দিন আগে আমি নিজেই ওই ইনস্টিটিউটের ছাত্রী ছিলাম৷ ভেতরে ভেতরে একটা আনন্দ, সেই সঙ্গে একটা বেশ ভয়!‌ কারণ, তখন নিয়ম ছিল, জার্মান পড়াতে হবে শুধু জার্মান ভাষার মাধ্যমে৷‌ অন্য কোনো ভাষাই ব্যবহার করা যাবে না৷ যাঁরা (‌ছাত্র হিসেবে)‌ এসেছিলেন, একটা এক্সপোর্ট প্রোগ্রামে, বিভিন্ন কোম্পানির ম্যানেজার এবং ইঞ্জিনিয়াররা৷ দু'‌‌ঘণ্টা ক্লাস করার পর মনে হলো, তাঁদের কিছু একটা বোঝাতে পারলাম৷ তখন সাফল্যের যে একটা আনন্দ, সেটা হলো৷'‌'‌ 

অডিও শুনুন 03:01

‘‘তখন নিয়ম ছিল, জার্মান পড়াতে হবে শুধু জার্মান ভাষার মাধ্যমে’’

কলকাতার গ্যোটে ইনস্টিটিউটে জার্মান ভাষাশিক্ষিকা হিসেবে সুনন্দা বসু অবসর নিয়েছেন ২০০৬ সালে৷ তাঁর পর থেকে তিনি এখনো বিভিন্ন বাণিজ্যিক সংস্থার কর্মীদের ভাষা শেখানোর দায়িত্ব নেন৷ খুব কম সময়ের মধ্যে, হয়ত দু'‌সপ্তাহের মধ্যে তাঁদের তৈরি করে দিতে হয়?‌ কীভাবে শেখান তাঁদের?‌ সুনন্দাদেবী জানাচ্ছেন, ‘‌‘‌আমি যতদূর জানি, আজকাল জার্মানিতে এইসব (‌বাণিজ্যিক)‌‌ স্তরের কথাবার্তা সাধারণত ইংরেজিতেই হয়৷ আমি যতটুকু শেখাই, সেটা হচ্ছে প্রাত্যহিক জীবনে যে প্রয়োজনগুলো৷ বাসে যেতে হলে কী বলবে, কোথায় যাচ্ছে, কোন এলাকায় যাচ্ছে, কত টাকার টিকিট কিনবে, এগুলো যদি কেউ নিজে না বুঝতে পারে, তা হলে প্রশ্ন করে যেন উত্তরগুলো পায়৷'‌'‌

সুনন্দা বসু এখন কলকাতার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে জার্মান ভাষাশিক্ষার অতিথি অধ্যাপক৷ আরো এক ধরনের শিক্ষায় তাঁর রীতিমতো সুনাম৷ জার্মান এবং অন্যান্য ইওরোপীয় ভাষাভাষী ছাত্র-ছাত্রীদের তিনি বাংলার প্রাথমিক পাঠ দেন৷ এরকম অনেকেই আসেন গবেষণার কাজে, বা কোনো সেবাসংস্থার সঙ্গে কাজ করতে৷ একইভাবে তাঁদেরকে তিন প্রাত্যহিক ব্যবহারের বাংলার প্রাথমিক শিক্ষাটি দিয়ে দেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন