জার্মান তরুণের মৃত্যুর কারণ হার্ট অ্যাটাক | বিশ্ব | DW | 10.09.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মান তরুণের মৃত্যুর কারণ হার্ট অ্যাটাক

যে মৃত্যু নিয়ে এত কথা, যার কারণে রাস্তায় নেমে এসেছিলেন জার্মান দক্ষিণপন্থিরা, সেই মৃত্যু হয়েছে হার্ট অ্যাটাকে, মারামারিতে নয়৷ এ কথা জানিয়েছেন এক স্থানীয় কর্মকর্তা৷

ঘটনা হলো, শনিবার দিবাগত রাতে জার্মানির পূর্বাংশের শহর কোথেনে মারামারি হয় দুই জার্মান ও দুই আফগানের মধ্যে৷ এ সময় মারা যান এক জার্মান৷ পরদিন  প্রায় আড়াই হাজার মানুষ নেমে আসেন রাস্তায়৷ করেন অভিবাসনবিরোধী মিছিল৷

দুই আফগানকে আটক করা হয়েছে৷ তাদের শারীরিক আঘাতে ঐ জার্মানের মৃত্যু হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷

স্থানীয় বিচারমন্ত্রীর বরাত দিয়ে জার্মান বার্তা সংস্থা ডিপিএ বলছে, মারামারির কারণে নয়, হার্টে দুর্বলতার কারণে মারা যান ঐ জার্মান নাগরিক৷ স্যাক্সনি-আনহাল্ট রাজ্যের বিচারমন্ত্রী আনে-মারি কেডিং বলেন, স্থানীয় কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে দাবি করা হয়েছে, তা সঠিক নয়৷ ২২ বছর বয়সি ঐ জার্মান নাগরিক মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে মারা যাননি৷ তাঁর হার্ট আগে থেকেই দুর্বল ছিল৷

এমনিতেইকেমনিৎসে কয়েকদিন আগে দুই মধ্যপ্রাচ্যের আশ্রয়প্রার্থীর হাতে আরেক জার্মান নিহতের ঘটনায় উত্তেজিত জনতাকে সামলাতে হিমসিম খেতে হয়েছে জার্মান প্রশাসনকে৷ তারওপর আবার এই ঘটনা অভিবাসীবিরোধী মনোভাবকে আরো উসকে দিতে পারে বলে মনে করেন অনেকে৷

এদিকে, কোথেনে সোমবারের মিছিল থেকে কোনো বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দেয়া বা বিদ্বেষ ছড়ানোর চেষ্টা হয়েছে কিনা তা তদন্ত করছে পুলিশ৷

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ঐ মিছিল থেকে ‘বর্ণযুদ্ধ'-এর কথা বলেছেন একজন বক্তা৷

জার্মানির পূর্বাংশের সরকারের একজন বিশ্লেষক মন্তব্য করেছেন, ‘‘যিনিই এ ধরনের মনোভাব প্রকাশ করেছেন, তিনি এ অঞ্চলের উদার-গণতান্ত্রিক ভাবধারা থেকে অনেক দূরে সরে গিয়েছেন৷''

জেডএ/এসিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন