জার্মান ডাকটিকিটে বাঙালির ছবি | বিশ্ব | DW | 29.12.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভারত-জার্মানি

জার্মান ডাকটিকিটে বাঙালির ছবি

কলকাতার শিল্পী সুদীপ চ্যাটার্জির আঁকা দু'টি ছবি জায়গা পেল জার্মানির ডাকটিকিটে৷ জার্মানির সঙ্গে সুদীপের সম্পর্ক অনেকদিনের৷ কিন্তু এ সম্মান সত্যিই বিরল৷

জার্মানির বন শহরে ডয়চে ভেলে ভবনের ঠিক পাশেই জার্মান ডাক বিভাগ ডয়চে পোস্টের সদর দপ্তর৷ সেখান থেকে সম্প্রতি একটি চিঠি আসে বাঙালি শিল্পী সুদীপ চ্যাটার্জির কলকাতার ঠিকানায়৷ চিঠিটি পড়ে সুদীপ বিস্ময়ে হতবাক, আনন্দে অভিভূত৷ যে কোনো শিল্পীর পক্ষেই যা এক বিশেষ এবং বিরল সম্মান, ডয়চে পোস্টের দু'টি ডাকটিকিটে ছাপা হয়েছে সুদীপের আঁকা ছবি৷ শিল্পী হিসেবে সুদীপের নামও ছাপা হয়েছে৷ এক একটি ডাকটিকিট এক ইউরো ৪৫ সেন্টের৷ দু'টি ডাকটিকিট নমুনা হিসেবে সুদীপকে পাঠিয়েও দিয়েছে ডয়চে পোস্ট৷

অডিও শুনুন 01:28
এখন লাইভ
01:28 মিনিট

‘জার্মানির সঙ্গে আমার যোগাযোগ অনেক দিনের’

ডয়চে ভেলেকে সুদীপ জানালেন, জার্মানির সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ অনেক দিনের৷ বিজ্ঞানের ছাত্র সুদীপ ডাক্তারি পড়ার সুযোগ পেয়েও ছেড়ে দিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন আর্ট স্কুলে৷ ইন্ডিয়ান স্কুল অফ আর্ট অ্যান্ড ড্রাফটম্যানশিপ থেকে তিনি পাস করেন ১৯৮৬ সালে৷ এরপর দীর্ঘদিনের শিল্পচর্চা৷ ১৯৯৮-৯৯ সালে, জার্মানির মেটৎসিঙ্গেনের ফ্রাইয়ে হোখশুলের কুনস্টসেমিনার-এ ‘‌আর্টিস্ট ইন রেসিডেন্স'‌ কর্মসূচির জন্য নির্বাচিত হন সুদীপ৷ সেই প্রথমবার জার্মানি সফরের পর থেকে তাঁর যাতায়াত জারি থেকেছে৷ একাধিক দলগত এবং একক প্রদর্শনী হয়েছে তাঁর ছবির৷

২০১৭ সালেরই ৩০ মে থেকে ১৯ জুন জার্মানির সাবিনে নয়বুর প্রদর্শনশালায় সমবেত প্রদর্শনীর অংশ ছিল সুদীপের আঁকা ছবি৷ ছবি নিয়ে তিনি সদ্য বার্লিনও ঘুরে এসেছেন৷ আগামী বছর, অর্থাৎ ২০১৮ সালেও মে-জুন মাসে স্টুটগার্টের কাছে গ্যোটিঙ্গেনে সুদীপের একক প্রদর্শনী আছে৷ কিন্তু জার্মানির ডাকটিকিটে তাঁর ছবির এভাবে জায়গা পাওয়াটা নিঃসন্দেহে এক বিরল সাফল্য৷ এদিকে ২০১৬-১৮ সালের জন্য ভারত সরকারের মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের সিনিয়র ফেলোশিপের জন্য মনোনীত হয়েছেন সুদীপ৷

বন্ধু, প্রতিবেদনটি কেমন লাগলো? জানান নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন