জার্মান এমপির বিরুদ্ধে মাস্ক নিয়ে ঘুসের অভিযোগ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 28.02.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

জার্মান এমপির বিরুদ্ধে মাস্ক নিয়ে ঘুসের অভিযোগ

জার্মানির রক্ষণশীল আইনপ্রণেতা গিয়র্গ ন্যুসলাইনের বিরুদ্ধে মাস্ক সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ছয় লাখ ৬০ হাজার ইউরো ঘুস নেয়ার অভিযোগ উঠেছে৷ এই অভিযোগ তদন্তের পক্ষে ভোট দিয়েছে জার্মান সংসদ বুন্ডেসটাগ৷

দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে জার্মানি ও লিস্টেনস্টাইনে ১৩ টি জায়গায় অভিযান চালানোর কথা নিশ্চিত করেছেন প্রসিকিউটররা৷ গিয়র্গ ন্যুসলাইনের দায়মুক্তির বিরুদ্ধে সর্বসম্মতিক্রমে ভোট দিয়েছে জার্মানির সংসদের নিম্নকক্ষ বুন্ডেস্টাগ৷ বুন্ডেস্টাগের দায়মুক্তি কমিটির সদস্য মার্কো বুশম্যান টুইটারে লিখেছেন, ‘‘গিয়র্গ ন্যুসলাইনের বিষয়টি নিয়ে বিচার বিভাগের এখনই তৎপর হওয়া উচিত৷’’

করোনা ভাইরাস সুরক্ষা মেডিকেল মাস্ক সরবরাহকারী একটি প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তির জন্য সরকারের কাছে লবির অভিযোগ আনা হয় ন্যুসলাইনের বিরুদ্ধে৷ গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী এর বিনিময়ে তিনি ছয় লাখ ৬০ হাজার ইউরো গ্রহণ করেছে৷ সে অর্থ ন্যুসলাইন পরিচালিত একটি কোম্পানিতে স্থানান্তর করা হয় এবং এই আয়ের ওপর কোনো কর ঘোষণা করা হয়নি বলে জানিয়েছে, জার্মান ব্রডকাস্টার আরটিএল৷

সোশ্যাল ডেমোক্রেট সদস্য কাটিয়া মাস্ট তার টুইটারে লিখেছেন, ‘‘সংসদের কোনো সদস্যের বিরুদ্ধে যদি করোনা মহামারি সংকট থেকে ব্যক্তিগতভাবে সুবিধা আদায়ের সন্দেহ থাকে তবে তা অত্যন্ত গুরুতর একটি অভিযোগ৷ এটি অবশ্যই স্পষ্ট করা উচিত৷’’

সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক দল-এসপিডি  আইনপ্রণেতারা দুর্নীতি রোধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে৷

ন্যুসলাইন ২০০২ সাল থেকে সংসদ সদস্য এবং ২০১৪ সাল থেকে রক্ষণশীল সংসদীয় দলের ডেপুটি প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন৷

এনএস/এসিবি(এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়