জার্মানি থেকে ইরাক-সিরিয়াগামী জিহাদির সংখ্যা বেড়েছে | বিশ্ব | DW | 21.05.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মানি থেকে ইরাক-সিরিয়াগামী জিহাদির সংখ্যা বেড়েছে

জঙ্গি সংগঠনগুলোতে যোগ দিতে জার্মানি থেকে এক হাজারেরও বেশি জিহাদি সিরিয়া ও ইরাকে গিয়েছেন বলে খবর বেরিয়েছে৷ তাদের অর্ধেকেরও বেশি জার্মান পাসপোর্টধারী৷

রোববারের জার্মান সংবাদপত্রগুলোর খবর অনুযায়ী, সরকারের কাছে অন্তত এক হাজার জিহাদির তথ্য আছে, যারা জঙ্গি সংগঠনগুলোতে যোগ দিতে জার্মানি থেকে সিরিয়া বা ইরাকে গিয়েছেন৷ 

জার্মানির বাম দলের এক সংসদ সদস্যের প্রশ্নের উত্তরে সরকারের পক্ষ থেকে এই পরিসংখ্যান দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ফুঙ্কে মিডিয়া গ্রুপের সংবাদপত্রগুলো৷

নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর বরাত দিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়৷ সেখানে বলা হয় যে, জার্মানি ছেড়ে যাওয়া এসব জিহাদির মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি জার্মান পাসপোর্টধারী৷

এ সংক্রান্ত অতীতের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, বিদেশগামী জিহাদিদের মোট সংখ্যা আগের চেয়ে বেড়েছে৷ তবে গত দু'বছরে ছেড়ে সেখানে যোগ দেবার হার কমেছে৷

প্রতিবেদন অনুযায়ী, আরো ২৪৩ জন সমর্থক কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) ও কুর্দিশ ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়ন পার্টি (পিওয়াইডি)-তে যোগ দিতে গিয়েছেন৷ এই দলগুলো তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন ‘ইসলামিক স্টেট'-এর বিরুদ্ধে লড়ছে৷ তবে জার্মানি এই সংগঠনগুলোকেও জঙ্গি সংগঠন মনে করে৷

যদিও অনেক জার্মান জিহাদি সিরিয়া, ইরাক ও তুরস্কে জেল খাটছেন, নারী ও শিশুসহ আরো অনেকেই আবার জার্মানি ফিরেছেন৷

প্রতিবেদন বলছে, চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের রক্ষণশীল ও সামাজিক গণতন্ত্রী পার্টি এসপিডির মধ্যে মহাজোট আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয় যে, দ্বৈত নাগরিকত্বধারী যুদ্ধফেরত জঙ্গিদের জার্মান নাগরিকত্ব বাতিল করা হবে৷

তবে এই সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছে বামদল৷ দলটির একজন বিশ্লেষক বলেছেন, এটি সংবিধান পরিপন্থি৷ তাঁর যুক্তি, যেসব জার্মান আইএস-এর বিরুদ্ধে কুর্দিদের সঙ্গে মিলে যুদ্ধ করেছে, তারাও এই আইনের শিকার হবে৷

এসপিডিপন্থি এক বিশ্লেষকও তাঁর এই বক্তব্যকে সমর্থন করেছেন৷ তিনি বলেন, এদের শাস্তি দেয়া ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা বেশি জরুরি ছিল৷

জেডএ/এসিবি (কেএনএ, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন