‘জার্মানির সম্পর্কে গুজব’ | বিশ্ব | DW | 27.10.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

‘জার্মানির সম্পর্কে গুজব’

জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় #রিউমার্সঅ্যাবাউটজার্মানি নাম দিয়ে একটি নতুন ওয়েবসাইট চালু করেছে৷ মানুষপাচারকারীরা অভিবাসন প্রত্যাশীদের যে ধরণের ভুয়া খবর দিয়ে থাকে, সে বিষয়ে সচেতন করাই হলো এই ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য৷

‘‘বাস্তব তথ্যগুলো পরখ করে দেখুন – অভিবাসীদের যা জানা দরকার, তা এখানে রয়েছে,’’ বলছে জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের নতুন ওয়েবসাইট৷ নাইজেরিয়া, আলজেরিয়া বা পাকিস্তানের মানুষরা জার্মানি ও ইউরোপ সম্পর্কে অনেক ভুয়া খবর শুনে থাকেন, যা তাদের ইউরোপে আসতে প্ররোচিত করে৷ অভিবাসনপ্রত্যাশীরা এসব খবরের সত্যতা যাচাই না করে, সরল মনে তা বিশ্বাস করেন৷

#রিউমার্সঅ্যাবাউটজার্মানি বা ‘জার্মানি সম্পর্কে গুজব’ হোমপেজটি ইংরেজি, ফরাসি বা আরবি ভাষায় দেখা যায়৷ ‘‘সাইটিটি স্মার্টফোন থেকে অ্যাক্সেস করা যায়; সাইটের ভাষা সহজ ও স্পষ্ট; এর লক্ষ্য হলো সেই সব মানুষ, যাঁরা জার্মানিতে আসার কথা ভাবছেন বা আসতে শুরু করেছেন কিংবা ইতিমধ্যেই এখানে এসে পৌঁছেছেন,’’ বলেন ফেডারাল পররাষ্ট্র দপ্তরে কৌশলগত যোগাযোগ বিভাগের প্রতিনিধি আন্ড্রেয়াস কিন্ডল৷

স্টার্ট পেজটিতে তিনটি ট্যাব আছে, যেগুলি পাঠককে তাঁর ব্যক্তিগত পরিস্থিতি অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট বিভাগটিতে নিয়ে যায়৷

‘দেশ ছাড়ার ব্যাপারে নিশ্চিত তো?’

প্রথম ট্যাবটির নাম ‘সিওর অ্যাবাউট লিভিং’ বা ‘দেশ ছাড়ার ব্যাপারে নিশ্চিত তো?’ এই ট্যাবটি থেকে যে তথ্য দেওয়া হয়, তা মানুষ পাচারকারীদের প্রচার করা ভুয়া খবর সম্পর্কে সাবধান করে দেয়৷ যেমন মানুষ পাচারকারীরা অনেক ক্ষেত্রে সম্ভাব্য অভিবাসীদেরবলে থাকে যে, তাঁদের এমন সব জাহাজে করে ইউরোপে নিয়ে যাওয়া হবে, যেগুলি খুব বড় ও যেগুলিতে সুইমিং পুল, এমনকি সিনেমা হলও আছে৷ এছাড়া মানুষ পাচারকারীরা উদ্বাস্তুদের বলে যে, তাঁরা ইউরোপে এলেই ২,০০০ ইউরো ও একটি চাকরি ও বাসাবাড়ি পাবে৷

‘পথে’

দ্বিতীয় ট্যাবটি হলো ‘অন ইওর ওয়ে’৷ এর উদ্দেশ্য হলো উদ্বাস্তুদের যাত্রা ও যাত্রাপথ সম্পর্কে সাবধান করে দেওয়া৷ এখানে যে ধরণের প্রশ্ন রয়েছে, তার নমুনা হলো: ‘‘একটি রাবার বোটে দু'ঘণ্টা কাটানোর পর কি আপনাকে উদ্ধার করা হবে?’’ যার স্পষ্ট উত্তরও সঙ্গে দেওয়া রয়েছে, ‘‘না৷’’

‘ফেরা দরকার’

তৃতীয় ট্যাবটি হলো ‘নিড টু রিটার্ন’ বা ‘ফেরা দরকার’৷ এখানে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে স্বেচ্ছায় স্বদেশে প্রত্যাবর্তন সম্পর্কে খবরাখবর থাকে, যেমন সেক্ষেত্রে জার্মান সরকারের কাছ থেকে কী ধরণের সাহায্য পাওয়া যেতে পারে৷ জর্ডান, লেবানন, তুরস্ক বা সুদানে জার্মান সরকারের যেসব ত্রাণ প্রকল্প আছে, সে বিষয়েও এই ট্যাব থেকে তথ্য পাওয়া যেতে পারে৷

কিন্ডল বলেন, ‘‘আমরা বাস্তবধর্মী উপায়ে বুঝিয়ে দিই যে, জার্মানিতে নতুন জীবন শুরু করা অনেকে যতটা ভাবেন, ঠিক ততটা সহজ নয়৷ কিন্তু তাই বলে আমরা শুধু নেতিবাচক দৃষ্টান্ত দিই না৷’’

‘‘#রিউমার্সঅ্যাবাউটজার্মানি-র সবচেয়ে বড় লক্ষ্য হলো, তথ্য সরবরাহের দায়িত্ব শুধু মানুষ পাচারকারীদের হাতে ছেড়ে না দেওয়া৷ বাস্তব তথ্যের ভিত্তিতে আমরা যাঁরা উদ্বাস্তু বা অভিবাসী ও ইতিমধ্যেই যাত্রা শুরু করেছেন, তাঁদের সঠিক খবরের একটা বুনিয়াদ দিয়ে বিষয়টিতে স্বচ্ছতা আনতে চাই,’’ যোগ করেন তিনি৷

মানসী গোপালকৃষ্ণান/এসি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়