জার্মানির শরণার্থীবান্ধব মেয়রের উপর ছুরি হামলা | বিশ্ব | DW | 28.11.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মানির শরণার্থীবান্ধব মেয়রের উপর ছুরি হামলা

জার্মানির আল্টেনা শহরের মেয়র আন্দ্রেয়াস হলস্টাইনকে সোমবার সন্ধ্যায় ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে৷ অবশ্য জখম খুব গুরুতর নয়৷ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তিনি বাড়ি ফিরে গেছেন৷

আল্টেনা শহরটি নর্থরাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের অন্তর্গত৷ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আরমিন লাশেট মেয়রের উপর হামলাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে আখ্যায়িত করেছেন৷

হামলার সময় মেয়র হলস্টাইন একটি কাবাবের দোকানে ছিলেন৷ অনলাইন সংবাদমাধ্যম ডাব্লিউএজেড বলছে, হামলাকারী মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন৷ হামলার আগে তিনি হলস্টাইনের কাছে জানতে চান, তিনিই মেয়র কিনা৷

মুখ্যমন্ত্রী লাশেট জানান, ঘটনার সময় হামলাকারী অভিবাসন সম্পর্কিত মন্তব্য করেন৷

উল্লেখ্য, হলস্টাইন শরণার্থীবান্ধব বলে পরিচিত৷ শরণার্থীদের দেখাশোনায় ভালো কাজের জন্য তাঁর শহর চলতি বছর জার্মান সরকারের পুরস্কার পেয়েছে৷ ১৭ হাজার অধিবাসীর আল্টেনা শহর ৩৭০ জন শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে৷ অর্থাৎ, কোটার চেয়ে ১০০ জন বেশি শরণার্থী গ্রহণ করেছে শহরটি৷ আল্টেনার অনেক বাসিন্দা শরণার্থীদের নিজেদের বাড়িতে আশ্রয় দিয়েছেন৷ কেউ আবার বিনামূল্যে শরণার্থীদের জার্মান শিখিয়েছেন৷

হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ৫৭ বছর বয়সি হলস্টাইন বলেন, ‘‘এখনও বেঁচে আছি বলে আমি খুশি৷''

জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের সিডিইউ দলের সদস্য হলস্টাইন৷ তাঁর উপর হামলার ঘটনায় ম্যার্কেল মর্মাহত হয়েছেন৷ মুখপাত্রের মাধ্যমে ম্যার্কেল বলেন, ‘‘মেয়র আন্দ্রেয়াস হলস্টাইনের উপর ছুরি হামলার ঘটনা শুনে আমি আতঙ্কিত৷ তবে তিনি আবার পরিবারের কাছে ফিরে যেতে পারবেন শুনে স্বস্তিবোধ করছি৷''

নর্থরাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আরমিন লাশেট জানান, ‘‘হামলাটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতধরে নিয়ে কর্তৃপক্ষ তদন্তে অগ্রসর হচ্ছে৷'' সরকারি কর্মকর্তাদের উপর হামলা ও রাজ্যে চরম ডানপন্থিদের দৌরাত্ম বেড়ে যাওয়ার সমালোচনা করেছেন তিনি৷ ‘‘নর্থরাইন ওয়েস্টফেলিয়ায় ঘৃণা ও সহিংসতার কোনো স্থান নেই৷ বৈচিত্র্য আমাদের রাজ্যের একটি অলংকার,'' বলেন লাশেট৷

উল্লেখ্য, বছর দুয়েক আগে কোলনের মেয়র হেনরিয়েটে রেকারের উপর হামলা হয়েছিল৷

আলেকজান্ডার পেয়ারসন/জেডএইচ

নির্বাচিত প্রতিবেদন