1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
জার্মানি
ছবি: Antonio Pisacreta/ROPI/picture alliance

জার্মানিতে নতুন কোভিডবিধি চালু হওয়ার সম্ভাবনা

২১ ডিসেম্বর ২০২১

ক্রিসমাসের পর নতুন বিধি চালু হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। ক্লাব এবং ডিস্কো বন্ধ হতে পারে।

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%9C%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%A8%E0%A6%A4%E0%A7%81%E0%A6%A8-%E0%A6%95%E0%A7%8B%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%A7%E0%A6%BF-%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%81-%E0%A6%B9%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%A8%E0%A6%BE/a-60204315

করোনা সংক্রমণ আগের চেয়ে খানিকটা কমলেও জার্মানি-সহ গোটা ইউরোপেই ওমিক্রনের সংক্রমণ চলছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে লকডাউন ঘোষণা করেছে নেদারল্যান্ডস। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্রিসমাসের পর নতুন বছরে ইউরোপে করোনার পঞ্চম ঢেউ শুরু হবে। এই পরিস্থিতিতে ক্রিসামাসের ঠিক পরেই জার্মানিতে নতুন কোভিডবিধি চালু হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

সোমবার জার্মানির নতুন চ্যান্সেলর ওলফ শলৎসের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন দেশের বিভিন্ন রাজ্যের প্রধানরা। সেখানেই নতুন বিধি চালু করার বিষয়ে আলোচনা হয়।

কী হবে নতুন বিধি

যারা টিকা নেননি, তাদের উপর কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি হতে পারে। বস্তুত, এখনই তাদের উপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা আছে। সর্বত্র তারা যেতে পারেন না। নতুন কোভিডবিধি চালু হলে তাদের উপর আরো নিষেধাজ্ঞা জারি হবে। পাশাপাশি, সমাবেশের ক্ষেত্রেও কড়াকড়ি হতে পারে।

যে প্রস্তাব এদিন নেয়া হয়েছে, ডিডাব্লিউ তা দেখেছে। সেখানে বলা হয়েছে, বাড়িতে কোনো অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে ১০ জনের বেশি একত্রিত হওয়া যাবে না। যাদের ভ্যাকসিন নেয়া নেই, তারা দুইজনের বেশি এক জায়গায় হতে পারবেন না। ক্লাব, ডিস্কো বন্ধ রাখা হতে পারে। থিয়েটার এবং স্পোর্টস কমপ্লেক্সেও কড়াকড়ি জারি হবে। থিয়েটারে ৩০ শতাংশ এবং স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ৫০ শতাংশ মানুষ যেতে পারবেন।

২৮ ডিসেম্বর থেকে এই বিধি চালু হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

নেদারল্যান্ডসে লকডাউনশুরু হয়ে গেছে। কিন্তু গোটা ইউরোপেই লকডাউন এবং কোভিডবিধি নিয়ে উত্তেজনা শুরু হয়েছে। শনি এবং রোববার ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস-সহ একাধিক জায়গায় রীতিমতো মিছিল করে বিক্ষোভ দেখিয়েছে এক শ্রেণির মানুষ। এর মধ্যে টিকা-বিরোধীরাও আছেন। বুস্টার ডোজেরও বিরোধিতা করছেন অনেকে।

এসজি/জিএইচ (ডিপিএ, রয়টার্স)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Symbolbild I Energiearmut I Hohe Energiepreise

‘গ্যাস সংকটের সহসা সমাধান নেই’

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান