জার্মানিতে করোনা নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, ১৩ পুলিশ আহত | বিশ্ব | DW | 21.12.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

জার্মানিতে করোনা নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, ১৩ পুলিশ আহত

সোমবার সন্ধ্যায় জার্মানির দক্ষিণাঞ্চলের মানহাইম শহরে করোনার নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করার চেষ্টায় পুলিশ বাধা দেয়৷ এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বিক্ষোভকারীরা পুলিশের উপর হামলা চালালে ১৩ পুলিশ সদস্য আহত হন৷

আহত এক পুলিশ সদস্যকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল৷ ১৩ জন বিক্ষোভকারীকে আটক করার কথা জানিয়েছে পুলিশ৷

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়াই বিক্ষোভ আয়োজনের চেষ্টা করায় পুলিশ বাধা দেয়৷

এদিকে মেকলেনবুর্গ-ফোরপোমান রাজ্যের ২০টি শহরে প্রায় ১৭ হাজার মানুষ সোমবার বিক্ষোভ করেন বলে পুলিশ জানিয়েছে৷ এই সংখ্যা সপ্তাহখানেক আগের তুলনায় প্রায় দ্বিগুন৷

রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ শহর রস্টকে সোমবার সন্ধ্যার বিক্ষোভে প্রায় ১০ হাজার মানুষ অংশ নেন৷ তাদের হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে বিভিন্ন বক্তব্য লেখা ছিল৷ যেমন ‘আমরা টিকা বাধ্যতামূলক করতে আগ্রহী নই', ‘করোনা সন্ত্রাস' ইত্যাদি৷ বিক্ষোভকারীদের অনেকেই মাস্ক পরেননি এবং সামাজিক দূরত্ব মানেননি বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

নতুন বিধিনিষেধ

জার্মানিতে করোনার পঞ্চম ঢেউ ঠেকাতে নতুন বিধিনিষেধ নিয়ে আলোচনা করতে মঙ্গলবার বৈঠক ডেকেছে জার্মান সরকার৷ বড়দিনের পর ২৮ ডিসেম্বর থেকে এই বিধিনিষেধ চালু হতে পারে৷

টিকাপ্রাপ্ত ও করোনা থেকে সেরা ওঠা ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত পর্যায়ে একসঙ্গে মিলিত হওয়ার সংখ্যা সর্বোচ্চ ১০ করতে চাইছে সরকার৷ ঘরের ভেতর এবং বাইরে সবখানেই এই নিয়ম প্রযোজ্য হতে পারে৷ ১৪ বছরের কমবয়সি শিশুদের এই নিয়মের আওতার বাইরে রাখার কথা ভাবা হচ্ছে৷

জার্মানিতে এখন পর্যন্ত ৭০.৩ শতাংশ মানুষ করোনার সব ডোজ টিকা নিয়েছেন৷ বুস্টার ডোজ নিয়েছেন প্রায় ৩১.৫ শতাংশ মানুষ৷

জার্মানির স্থানীয় সময় সোমবার সকাল ১০টায় প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২৪ ঘণ্টায় ১৬ হাজার ৮৬ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন৷ মারা গেছেন ১১৯ জন৷

জন সিল্ক/জেডএইচ (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়