জার্মানদের বিশ্বাস, ম্যার্কেলের সেরা সময় শেষ | বিশ্ব | DW | 05.01.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মানদের বিশ্বাস, ম্যার্কেলের সেরা সময় শেষ

প্রতি তিনজন জার্মান নাগরিকের মধ্যে দু'জনই মনে করছেন, নেতা হিসেবে আঙ্গেলা ম্যার্কেল তাঁর সেরা দিনগুলো পার করে এসেছেন৷ তবে এখনও তাঁকে ‘একজন ভালো চ্যান্সেলর' বলে মনে করেন তাঁরা৷

সরকারি প্রচারমাধ্যম এআরডি ও দৈনিক পত্রিকা ‘ডি ভেল্ট'-এর এক জরিপে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে৷ বৃহস্পতিবার প্রকাশিত জরিপের ফলাফলে বলা হয়, ৬৭ শতাংশ জার্মান মনে করেন, এক সময় ম্যার্কেল যে মাপের ছিলেন, এখন তিনি আর সেরকম নেই৷ অবশ্য জার্মান ভোটাররা ম্যার্কেলের উপর থেকে পুরোপুরি বিশ্বাস হারাননি৷ তাই তো জরিপে অংশ নেয়া ৬৫ শতাংশ মানুষ এখনও মনে করেন, ম্যার্কেল ‘একজন ভালো চ্যান্সেলর'৷

জরিপে বড় একটি সমস্যার কথাও উঠে এসেছে৷ সেটি হচ্ছে, ম্যার্কেলের খ্রিষ্টীয় গণতন্ত্রী দল বা সিডিইউতে এখনও ম্যার্কেলের বিকল্প গড়ে ওঠেনি৷ তিন-চতুর্থাংশ জার্মান মনে করছেন, সিডিইউতে একজন ‘নতুন নেতা' দরকার৷

এখনও সরকার গঠিত হয়নি

গতবছরের ২৪ সেপ্টেম্বর জার্মানিতে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়৷ কিন্তু এখনও সরকার গঠন সম্ভব হয়নি৷ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর জার্মানিতে আর কোনো সময় সরকার গঠনে এতদিন অপেক্ষা করতে হয়নি৷ এ নিয়ে জরিপে অংশগ্রহণকারীরা তাঁদের হতাশা প্রকাশ করেছেন৷

নির্বাচনে ম্যার্কেলের দল সিডিইউ ও বাভারিয়া রাজ্যে তাঁদের সঙ্গী দল সিএসইউ ৩২ দশমিক ৯ শতাংশ ভোট পায়৷ ফলে সরকার গঠন করতে তাদের জোটসঙ্গীর প্রয়োজন৷ সেই লক্ষ্যে ব্যবসাবান্ধব দল এফডিপি এবং সবুজ দলের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছিল তারা৷ কিন্তু সেটি ফলপ্রসু না হওয়ায় আলোচনা ভেস্তে যায়৷ সমস্যার শুরু হয় সেখানেই৷ এরপর জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাংক ভাল্টার স্টাইনমায়ারের উদ্যোগে সিডিইউ-সিএসইউ ও নির্বাচনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পাওয়া সামাজিক গণতন্ত্রী বা এসপিডি দলের মধ্যে একটি জোট গড়ার চেষ্টা শুরু হয়েছে৷ আগামী রবিবার এই দুই দলের মধ্যে প্রাথমিক পর্যায়ের আলোচনার প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে৷ এটাকে বলা হচ্ছে ‘এক্সপ্লোরেটরি টক'৷ এই পর্যায়ের আলোচনার পর আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দুই দলের মধ্যে জোট গঠনে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে৷

আলোচনা সফল করার লক্ষ্যে দুই দলের শীর্ষনেতারা ইতিমধ্যে একটি সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন৷ সেটি হচ্ছে, দুই দলের আলোচকরা আলোচনার বিষয়ে গণমাধ্যমে কোনো কথা বলবেন না৷ জার্মান গণমাধ্যম ‘ডেয়ার স্পিগেল' এমন সিদ্ধান্তের তথ্য প্রকাশ করেছে৷

উল্লেখ্য, এফডিপি ও সবুজ দলের সঙ্গে সিডিইউ-র আলোচনা চলার সময় আলোচকদের মধ্যে কেউ কেউ আলোচনার বিষয়বস্তু নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলেছিলেন৷ এতে আলোচনায় অংশ নেয়া দলগুলোর মধ্যে অবিশ্বাসের জন্ম নিয়েছিল৷ আলোচনা সফল না হওয়ার জন্য এই বিষয়টিকেও অনেকাংশ দায়ী করা হয়৷

ফলে এবারের আলোচনার সময় যেন সেই অবস্থার পুনরাবৃত্তি না হয় সেজন্য এবার গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা না বলার সিদ্ধান্তে একমত হয়েছেন শীর্ষ নেতারা৷

জেডএইচ/এসিবি (ডিডাব্লিউ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন