জরুরি অবস্থা সমর্থন করি না: রাহুল গান্ধী | বিশ্ব | DW | 03.03.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

জরুরি অবস্থা সমর্থন করি না: রাহুল গান্ধী

ইন্দিরা গান্ধীর জরুরি অবস্থা তিনি সমর্থন করেন না। বিস্ফোরক মন্তব্য রাহুল গান্ধীর।

ঠাকুমার বিরুদ্ধে মুখ খুললেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। জানালেন, ইন্দিরা গান্ধী যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিলেন, তা তিনি সমর্থন করেন না। যদিও তার মতে, বর্তমান সময় জরুরি অবস্থার চেয়েও ভয়াবহ।

১৯৭৫ সাল থেকে '৭৭ সাল পর্যন্ত ২১ মাসের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিলেন তৎকালীন কংগ্রেস নেত্রী তথা ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। ভারতের ইতিহাসে এখনো যা কালো অধ্যায় হিসেবে সূচিত হয়ে আছে। সম্প্রতি অ্যামেরিকার কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক তথা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ কৌশিক বসুর বসুর সঙ্গে এক আলোচনায় যোগ দিয়েছিলেন রাহুল। সেখানে তিনি এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ইন্দিরা গান্ধীর জরুরি অবস্থাকে তিনি সমর্থন করেন না। শুধু তাই নয়, তার বক্তব্য, পরবর্তী সময়ে ইন্দিরা গান্ধীও একই কথা বলেছেন।

এই প্রথম কংগ্রেসের কোনো নেতা জরুরি অবস্থা নিয়ে সরাসরি এ ধরনের মন্তব্য করলেন। এর আগে বহুবার জরুরি অবস্থা নিয়ে ভারতের রাজনীতিতে বহু আলোচনা হয়েছে। কিন্তু সরাসরি কোনো কংগ্রেস নেতা এ বিষয়ে মন্তব্য করেননি।

ইদানীং ভারতের রাজনীতিতে জরুরি অবস্থা নিয়ে বহু কথা হয়। কারণ, বর্তমান শাসক দল বিজেপি এ বিষয়ে নতুন করে কথা বলতে শুরু করেছে। বিজেপির বহু নেতাকে সে সময় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। রাহুল গান্ধী বলেছেন, জরুরি অবস্থার সময় কিছু নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। কিন্তু এই সময়ে আরএসএস-এর মানুষদের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সামাজিক ভাবে এক হিন্দু রাষ্ট্রের দিকে দেশকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। এরপর বিজেপি শাসন ক্ষমতা থেকে সরে গেলেও এই পরিস্থিতির বদল খুব দ্রুত সম্ভব হবে না।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশের মতে, জরুরি অবস্থার সময় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের জেলে ঢোকানো হয়েছিল। কিন্তু এই সময়ে সাধারণ নাগরিকদের মনে এক ধরনের ভয় তৈরি করা হচ্ছে। যে কোনো ঘটনায় দেশদ্রোহের মামলা করা হচ্ছে। ফলে এই সময়ে ভারতে এক অঘোষিত জরুরি অবস্থা চলছে। বিজেপি অবশ্য এই অভিমত মানতে রাজি নয়।

এসজি/জিএইচ (পিটিআই)

সংশ্লিষ্ট বিষয়