জনগণের আকাঙ্খা পূরণে সফল আওয়ামী লীগ? | বিশ্ব | DW | 23.06.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

জনগণের আকাঙ্খা পূরণে সফল আওয়ামী লীগ?

বাংলাদেশের সবচেয়ে পুরনো দল আওয়ামী লীগ৷ এমনকি উপমহাদেশের প্রাচীনতম দলগুলোর মধ্যে একটি এটি৷ কিন্তু একাধিকবার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকা দলটি মানুষের আশা-আকাঙ্খার কতোটা পূরণ করতে পেরেছে?

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছে৷ দেশের উন্নতি-অগ্রগতি অনেক কিছুই এসেছে এই দলের হাত ধরে৷ কিন্তু সহযোগী সংগঠনকে নিয়ন্ত্রণ, ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য কমানোসহ অনেক কিছুই এখনো না করতে পারার অভিযোগ আছে দলটির বিরুদ্ধে৷

শনিবার ছিল দলটির ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী৷ দিনটি উদযাপনে বিশেষ কর্মসূচি পালন করে দলটি৷ সকালে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়৷ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে নবনির্মিত প্রধান কার্যালয়ের সামনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও নতুন কার্যালয় উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী ও দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা৷

সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে দলের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়৷ সেখানে তৃণমূল থেকে আসা ৪ হাজার ১৩৪ জন নেতা অংশ নেন৷ নির্বাচন নিয়ে ওই বৈঠকে দিকনির্দেশনা দেন দলীয় সভাপতি৷

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে জিতে টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পথে মানুষের রায়কে গুরুত্ব দিতে দলের নেতাদের আহ্বান জানান শেখ হাসিনা৷ দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে, ত্যাগের মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি৷

সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ২০০৮ সালের ডিসেম্বরে জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোট নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় আসে৷ এরপর বিএনপির বর্জনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে জয়ী হয়ে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ৷ আগামী ডিসেম্বরেই অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে যাচ্ছে৷

বিশ্লেষকরা বলছেন, সমালোচনা সহ্য করতে না পারার ফলে দলটিতে গণতান্ত্রিক চর্চা কমে গেছে৷

ডয়চে ভেলের সঙ্গে আলাপকালে অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘‘মুসলিম শব্দটি ফেলে দিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ জনগণের দলে পরিণত হয়েছিল৷ দেশ স্বাধীন হয়েছে এই দলের হাত ধরেই৷ যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গঠনের কাজটিও শুরু হয়েছে আওয়ামী লীগের হাত ধরেই৷ দেশের জনগণের জন্য অনেক কিছুই করেছে দলটি৷''

অডিও শুনুন 00:31
এখন লাইভ
00:31 মিনিট

‘কিছু ক্ষেত্রে মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি দলটি’

তবে দলটি কিছু ক্ষেত্রে মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি বলেও মনে করেন তিনি৷ তাঁর মতে, দলের নীতিনির্ধারকরা ‘‘পারেননি সহযোগী সংগঠনকে নিয়ন্ত্রণ করতে৷ পারেননি ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য কমাতে৷ তবে দারিদ্রের হার কমেছে এটা স্বীকার করতেই হবে৷ আবার হেফাজতের মতো স্বাধীনতাবিরোধীদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মানুষের আশা-আকাঙ্খাকে দূরে ঠেলে দিয়েছে৷''

আওয়ামী লাগের রাজনীতি বিশ্লেষণ করতে গিয়ে অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর নেতৃত্বে যখন দলটি গড়ে ওঠে, তখন জনসম্পৃক্ততা ছিল৷ সোহরাওয়ার্দীর সময়ে কিছু সমস্যা ছিল৷ তবে শেখ সাহেব দলের দায়িত্ব নেওয়ার পর রাতারাতি জনপ্রিয় দলে পরিণত হয় আওয়ামী লীগ৷ বিশেষ করে ৬ দফা দেয়ার পর থেকেই৷''

অডিও শুনুন 00:31
এখন লাইভ
00:31 মিনিট

‘দলের মধ্যে গণতন্ত্র বা আত্মসমালোচনা একেবারেই নেই’

কিন্তু আত্মসমালোচনা না করা দলটির সবচেয়ে বড় ঘাটতি বলে মনে করেন তিনি৷ ‘‘দলের মধ্যে গণতন্ত্র বা আত্মসমালোচনা একেবারেই নেই৷ সবাই ভুল করে৷ তারাও যে ভুল করতে পারে সেটা তারা একেবারেই স্বীকার করে না৷ ১৯৯৬ সালে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে শেখ হাসিনা বলেছিলেন, যদি আমরা কোন ভুল করে থাকি তাহলে ক্ষমা করে দিয়েন৷ এরপর আর তাঁরা ভুলের কথা কখনও বলেনি৷ এই জায়গাটায় একটা বড় ধরনের ঘাটতি রয়েছে বলেই আমার মনে হয়৷''

তবে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারাকে বড় ব্যর্থতা হিসেবে দেখতে নারাজ আওয়ামী লীগের মুখপাত্র ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ৷ ডয়চে ভেলেকে তিনি বলেন, ‘‘সারা বিশ্বেই যুব সমাজের মধ্যে একধরনের অস্থিরতা বিরাজ করছে৷ উন্নত দেশগুলোতেও অস্থিরতা চলছে৷ সেখানে স্কুলে ঢুকে শিশুদের হত্যা করা হচ্ছে৷ আমরা তো বিশ্বের বাইরে নয়৷ এ কারণে এখানে কিছু অস্থিরতা আছে৷ তবে সেটা বড় কিছু নয়৷''

অডিও শুনুন 00:24
এখন লাইভ
00:24 মিনিট

‘আওয়ামী লীগ বিরোধীরাই অপপ্রচার চালাচ্ছে’

স্বাধীনতা বিরোধীদের সঙ্গে সখ্যতার অভিয়োগ বিষয়ে হানিফ বলেন, ‘‘এটা নিয়ে মানুষ ভুল বোঝে। ১৯৯৬ সালে যখন বিএনপি একতরফা নির্বাচন করল, তখন আওয়ামী লীগ আন্দোলন করেছে৷ সেই আন্দোলনে আওয়ামী লীগের পেছনে অনেকেই এসেছে৷ জামায়াতে ইসলামীও এসেছিল৷ আওয়ামী লীগ তো তাদের আনিনি৷ জোটও করেনি৷ এটা নিয়ে অপপ্রচার করা হয়, যেটা আদৌ সত্য নয়৷ আওয়ামী লীগ বিরোধীরাই এটা করে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও