জঙ্গি ভেবে সেনার গুলি, নাগাল্যান্ডে মৃত বহু, তাণ্ডব | বিশ্ব | DW | 06.12.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

জঙ্গি ভেবে সেনার গুলি, নাগাল্যান্ডে মৃত বহু, তাণ্ডব

নাগাল্যান্ডে প্রথমে সন্ত্রাসবাদী ভেবে গ্রামবাসীদের উপর সেনার গুলি। নিহত ছয়। তারপর তাণ্ডব। সবমিলিয়ে নিহত ১৬।

সেনার দুইটি গাড়িও পুড়িয়ে দিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

সেনার দুইটি গাড়িও পুড়িয়ে দিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

অগ্নিগর্ভ নাগাল্যান্ড। মন জেলায় ওটিং গ্রামের কাছে সন্ত্রাসবাদী ভেবে নিরীহ গ্রামবাসীর উপর গুলি চালায় সেনাবাহিনীর বিশেষ প্যারা কম্যান্ডোরা। গ্রামবাসীরা কয়লাখনি থেকে পিক আপ ভ্যানে বাড়ি ফিরছিলেন। প্রতি রোববারেই তারা এভাবে গ্রামে ফেরেন। আবার সোমবার কাজে যোগ দেন। পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, প্যারা কম্যান্ডোদের কাছে খবর ছিল জঙ্গিরা অরুণাচলের দিক থেকে ঢুকবে। তারা গ্রামবাসীদের সন্ত্রাসবাদী ভেবে গুলি চালাতে থাকে। ভ্যানে আটজন ছিলেন। ছয়জন সেখানেই মারা যান। দুইজন আহত।

এই খবর পাওয়ার পর গ্রামবাসীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে চলে আসেন। তখন প্যারা কম্যান্ডোদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। তারা কম্যান্ডোদের দুইটি গাড়ি পুড়িয়ে দেন। একজন কম্যান্ডোকে গ্রামবাসীরা ঘিরে ফেলে। কম্যান্ডো তখন গুলি চালাতে থাকে। গুলি শেষ হয়ে গেলে গ্রামবাসীরা তাকে পিটিয়ে মারে। বাকি কম্যান্ডোরা দুইজন আহতকে নিয়ে আসামের ডিব্রুগড় পৌঁছান। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Indien Kohima | Indische Soldaten töten 13 Zivilisten in Nagaland

মন জেলার ওটিং গ্রামে কালো পতাকা, সেনার বিরুদ্ধে পোস্টার।

এরপর গ্রামবাসীরা প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। তারা মিছিল করে আসাম রাইফেলসের শিবিরের দিকে যান। বাধা পাওয়ায় তারা ভাঙচুর শুরু করেন। আসাম রাইফেলসের জওয়ানরা প্রথমে শূন্যে গুলি চালায়। তাতে কাজ না হওয়ায় প্রতিবাদকারীদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ।

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য

মুখ্যমন্ত্রী নেফিয়ু রিও দিল্লিতে ছিলেন। ঘটনার পর দ্রুত নাগাল্যান্ড ফিরে আসেন। রিও জানিয়েছেন, ''নিরাপত্তা বাহিনী ভুল করে গুলি চালিয়ে সাধারণ গ্রামবাসীকে মেরেছে। ওটিং গ্রামের এই ঘটনা খুবই দুঃখের ও নিন্দনীয়। সরকার গ্রামবাসীদের পাশে আছে। তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এক মাসের মধ্যে তারা রিপোর্ট দেবে।''

তদন্ত কমিটিতে আছেন পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা ও ১৫ নম্বর ব্যাটেলিয়ানের ডেপুটি কম্যান্ডান্ট।

Indien 13 Zivilisten von indischen Sicherheitskräften in Nagaland getötet

ঘটনা পর কোহিমার বাইরে সেনা শিবিরের প্রবেশদ্বারের ছবি।

প্রতিবাদ চলছে

সোমবর রাজ্যে বনধ ডাকা হয়েছে। মনে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। হর্নবিল উৎসব বাতিল করা হয়েছে্।  সেখানে এখনো প্রবল উত্তেজনা রয়েছে।

সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জেলিয়াং বলেছেন, ''যেভাবে কম্যান্ডোরা গ্রামবাসীদের হত্যা করেছে, তার কোনো ক্ষমা হয় না। সভ্যসমাজে এই কাজ ভাবা যায় না।''

নাগা সন্ত্রাসবাদী সংগঠন এনএসসিএমের  তরফে বলা হয়েছে, ''নাগাল্যান্ডের ইতিহাসে কালো দিন। সূত্রের ভুল খবরের অজুহাত দিয়ে সেনা এর দায় এড়াতে পারবে না। কেন্দ্রীয় সরকার একদিকে নাগাল্যান্ড নিয়ে শান্তি আলোচনা চালাচ্ছে, অন্যদিকে সেনার গুলিতে সাধারণ মানুষ মারা যাচ্ছেন, এটা হতে পারে না।''

জিএইচ/এসজি (পিটিআই, এএনআই)

সংশ্লিষ্ট বিষয়