‘চীনের টিকার ক্ষেত্রে উই মিসড দ্য ট্রেন’ | বিষয় | DW | 08.01.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

‘চীনের টিকার ক্ষেত্রে উই মিসড দ্য ট্রেন’

বাংলাদেশে করোনা-টিকার ক্ষেত্রে সেরাম ইনস্টিটিউটের টিকার বিকল্প আছে কি নেই, সেপ্রসঙ্গে এমনটাই বললেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা.আ ফ ম রুহুল হক৷

ডয়চে ভেলের সাপ্তাহিক ইউটিউব টকশো ‘খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়'-এ এবার আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আ ফ ম রুহুল হক এমপি এবং জি-নাইন-এর সাধারণ সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হোসেন সায়ন্থ৷ এবারের বিষয় ছিল ভ্যাকসিনের কূটনীতি: ভারত ও চীন৷

অনুষ্ঠানে করোনা ভাইরাসের টিকা দেশে আসা ও ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের ওপর বাংলাদেশের নির্ভরতার প্রসঙ্গটি আলোচিত হয়৷ এ প্রসঙ্গে সাখাওয়াত হোসেন সায়ন্থ উত্থাপন করেন চীনের টিকা ও রাশিয়ার স্পুটনিক টিকা বাংলাদেশে আনার সুবিধার দিকটি৷ কেন সেরাম ইনস্টিটিউটের দিকেই শুধু তাকিয়ে আছে বাংলাদেশ, সে প্রশ্ন তোলেন তিনি৷ জানতে চান, ‘‘সেরাম ইনস্টিটিউটের থেকে আসট্রাজেনেকার টিকা ছাড়া কি আমাদের কাছে আর কোনো বিকল্প ছিল না? চীনের টিকার ট্রায়াল বাংলাদেশে হবার কথা ছিল, সেই ট্রায়াল কেন হলো না? চীনের সাথে কোন রাজনীতি ব্যর্থ হয়েছে?''

জবাবে আ ফ ম রুহুল হক বলেন, ‘‘চীনের ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে উই মিসড দ্য ট্রেন৷ তবে সেই টিকা আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে অনুমোদিত হয়ে এলেই নিতে পারতাম, কিন্তু তা হয়নি৷ আর এছাড়া আমি আগেও বলেছি যে, আমাদের বিকল্প খোঁজা উচিত, সেটা নিয়ে আমি সায়ন্থ'র সাথে একমত৷ আমি এ বিষয়ে এর আগে অন্যন্য টেলিভিশন চ্যানেলের লাইভ অনুষ্ঠানেও বলেছি যে, আমাদের অন্যান্য বিকল্প টিকার কথা ভাবা উচিত৷ কখনোই টিকার মাত্র একটি উৎসের ওপর ভরসা করে থাকা আমাদের উচিত ছিল না৷ একাধিক উৎসের কথা বিবেচনা করা উচিত৷''

এছাড়া, আজকের পর্বে  বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে উন্নততর ব্যবস্থাপনা, স্বাস্থ্যখাতে ব্যয়, দুর্নীতি ও অপরাজনীতির প্রসঙ্গও আলোচিত হয়৷

এসএস/এসিবি