চলে গেলেন সুর সাম্রাজ্ঞী হুইটনি হিউস্টন | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 16.02.2012
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

সমাজ সংস্কৃতি

চলে গেলেন সুর সাম্রাজ্ঞী হুইটনি হিউস্টন

১১ ফেব্রুয়ারি চির বিদায় নিলেন পপ-সৌল সংগীত জগতের অসাধারণ জনপ্রিয় শিল্পী হুইটনি হিউস্টন৷ বহুমুখি প্রতিভার অধিকারী এই সংগীত তারকা পেয়েছিলেন আকাশচুম্বী সাফল্য ও স্বীকৃতি৷

৮০ এবং ৯০'এর দশকে হুইটনি হিউস্টন ছিলেন বিশ্বের সবচাইতে জনপ্রিয় মহিলা সংগীত শিল্পী৷ ১৯৮৫ সালে তাঁর প্রথম অ্যালবাম ‘হুইটনি হিউস্টন' তাঁকে এনে দেয় বিশ্বব্যাপী খ্যাতি এবং তাঁর উঁচু সুরেলা কণ্ঠে ‘ব্যালেড' আঙ্গিকের গান জয় করে নেয় লক্ষ মানুষের হৃদয়৷

‘হুইটনি হিউস্টন' অ্যালবামের পর থেকে সংগীত জগতে তাঁর সাফল্য নজিরবিহীন৷ তিনি হয়ে ওঠেন পপ-সৌল সংগীতের প্রতীক৷ প্রায় তিন দশকের সংগীত জীবনে সব মিলিয়ে প্রায় ৪১৫টি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি৷ এ অবধি আর কোনো মহিলা সংগীত শিল্পী এতো পুরস্কারে ভূষিত হতে পারেননি৷ আর তাই, ২০০৯ সালে ‘গিনিস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড'-এ স্থান পেয়েছে তাঁর নাম৷ স্বীকৃতি ছাড়াও তিনি অসাধারণ বানিজ্যিক সাফল্যও পেয়েছেন৷ অন্ততপক্ষে ১৭০ মিলিয়ন বা ১৭ কোটি অ্যালবাম বিক্রি হয়েছে তাঁর৷

Whitney Houston

মাত্র ৪৮ বছর বয়সে বিদায় নিতে হলো হুইটনি হিউস্টন’কে

হুইটনি হিউস্টন'এর জন্ম ১৯৬৩ সালে, অ্যামেরিকার নিউ জ্যার্সির নেওয়ার্ক শহরে, এক সংগীত পরিবারে৷ মা সিসি হিউস্টন ‘গস্পেল' সংগীত শিল্পী৷ খালা বিখ্যাত সৌল সংগীত শিল্পী আরেথা ফ্র্যঙ্কলিন৷ ডায়ানা ও ডি ডি ওয়ারউইক তাঁর খালাত বোন৷ ছোটবেলা থেকেই মায়ের কাছে সংগীতে তালিম নেন তিনি৷ ১১ বছর বয়স থেকে মায়ের সাথে বিভিন্ন গস্পেল সংগীতানুষ্ঠানে যোগ দেন হিউস্টন৷ ১৫ বছর বয়সে বিভিন্ন বিখ্যাত সংগীত শিল্পীর নেপথ্য কণ্ঠ শিল্পী হিসেবে শুরু হয় তাঁর সংগীত জীবন৷ সেই সাথে মডেল হিসেবেও খ্যাতি অর্জন করেন হুইটনি৷ ১৯৮৩ সালে চুক্তিবদ্ধ হোন এরিস্টা রেকর্ড কোম্পানির সাথে৷ ১৯৮৫ সালে বের হয় তাঁর প্রথম অ্যালবাম ‘হুইটনি হিউস্টন'৷ বিক্রি হয় প্রায় ২ কোটি ৫০ লক্ষ কপি৷

গানের পাশাপাশি বেশ কিছু ছায়াছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি৷ কিন্তু আন্তর্জাতিক খ্যাতি ও স্বীকৃতি পেয়েছেন সাড়া জাগানো চলচ্চিত্র ‘দ্য বডিগার্ড'-এর মধ্যে দিয়ে৷ ১৯৯২ সালে নির্মিত এই ছবির আবহসংগীত ‘গ্র্যামি' পুরস্কারে ভূষিত হয়৷ ১১ ফেব্রুয়ারি মাত্র ৪৮ বছর বয়সে, গ্র্যামি পুরস্কার অনুষ্ঠানের ঠিক এক দিন আগে লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি হোটেল ঘরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন সংগীত জগতের অসাধারণ প্রতিভা হুইটনি হিউস্টন৷

প্রতিবেদন: মারুফ আহমদ

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন