ঘোড়ায় চড়ে টগবগিয়ে স্কুলে গেল কিশোরী | বিশ্ব | DW | 24.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভাইরাল ভিডিও

ঘোড়ায় চড়ে টগবগিয়ে স্কুলে গেল কিশোরী

‘ইউ আর মাই হিরো'-এই শিরোনামেই সামাজিক মাধ্যমে এই কিশোরীর ভিডিও ছড়িয়েছে৷ শুধু ঘোড়ায় চড়ে নয়, রীতিমতো টগবগিয়ে ঘোড়া ছুটিয়েছে সে৷ গিয়েছে পরীক্ষা দিতে৷ কিন্তু কেন?

ভারতের কেরালার ত্রিশূর জেলায় এমন সাড়া ফেলে দেয়া ব্যাপারটি ঘটেছে৷

ভিডিওতে দেখা যায়, এক কিশোরী স্কুলের ড্রেস পরে, পিঠে ব্যাগ ঝুলিয়ে দিনে দুপুরে রাস্তা দিয়ে ঘোড়া ছোটাচ্ছে টগবগিয়ে৷ এমনভাবে ছুটিয়েছে যা ফিল্মে দেখা রাজকুমার-রাজকুমারীদের ঘোড়া ছোটানোকেও যেন হার মানায়৷

কিশোরীর নাম৷ কিন্তু কেন সে হঠাৎ স্কুলে গেল এভাবে? ভিডিওটি ভাইরাল হবার পর ভারতের সংবাদ সংস্থা এএনআই গিয়েছিল তার কাছে৷ রত্না তাদের জানিয়েছে, ‘‘আমি ঘোড়ায় চড়ে রোজ স্কুলে যাই না৷ কিছু কিছু বিশেষ দিনে, অথবা কিছু কিছু পরীক্ষার দিনে আমি ঘোড়ায় চেপে স্কুলে যাই৷ যদি আপনি আমাকে জিজ্ঞাসা করেন যে, এবার কোন বিশেষ দিন ছিল, তাহলে বলব, এদিন আমার দশম শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষার শেষ দিন ছিল৷''

কৃষ্ণা জানায়, ৭ বছর বয়সে সে ঘোড়ায় চড়া শেখে এবং বহু বছর অনুশীলন করার ফলে এখন সহজেই ঘোড়ায় চেপে স্কুলে যেতে পারে৷

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলটিকে কৃষ্ণা জানিয়েছে একরকম চ্যালেঞ্জ জয়ের বাসনা থেকেই ঘোড়ায় চড়া শিখেছে সে, ‘‘আমার বন্ধুদের একজন বলেছিল, ঘোড়ার পিঠে চড়া এত সহজ নয় এবং মেয়েদের পক্ষে তা সম্ভবই নয়৷ ঐ বন্ধু বলেছিল যে, সবাই ঝাঁসির রানী হতে পারে না৷ তাই আমি ভাবলাম কেন কোনো সাধারণ মেয়ে ঘোড়া চালাতে পারবে না?''

তার ভিডিওটি প্রথম শেয়ার করেন মনোজ কুমার নামের এক টুইটার ব্যবহারকারী৷ তিনি তাঁর হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া ভিডিওটি ৭ এপ্রিল প্রকাশ করেন৷ এরপর তাঁর অ্যাকাউন্টেই মঙ্গলবার পর্যন্ত এটি দেখা হয়েছে সোয়া তিন লাখের বেশিবার৷ রিটুইট হয়েছে চার হাজার বার৷ এছাড়া বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্মে এটি এরই মধ্যে প্রকাশিত হয়েছে এবং লাখ লাখ বার দেখা হয়েছে৷

জেডএ/এসিবি 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন