গ্রামীণ ব্যাংক রক্ষায় সবার সহায়তা চাইলেন ইউনূস | বিশ্ব | DW | 29.06.2012
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

গ্রামীণ ব্যাংক রক্ষায় সবার সহায়তা চাইলেন ইউনূস

বাংলাদেশে শুরু হয়েছে দু’দিনব্যাপী সামাজিক ব্যবসা সম্মেলন৷ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের উদ্যোগে এই সম্মেলনে যোগ দেন মার্কিন নভোচারী রন গারানসহ ১৯টি দেশের প্রতিনিধিরা৷ সেখানে ড. ইউনূস তাঁর গ্রামীণ ব্যাংক রক্ষায় সবার সহায়তা চান৷

সামাজিক ব্যবসা সম্মেলনের নাম দেয়া হয়েছে ‘সোশ্যাল বিজনেস ডে'৷ বৃহস্পতিবার সাভারের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে দেশি-বিদেশি প্রতিনিধিদের সামনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস৷ গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা এবং সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস সাংবাদিকদের জানান গ্রামীণ ব্যাংকে সরকারের মালিকানা মাত্র ৩ শতাংশ৷ আর বাকি ৯৭ ভাগ শেয়ারের মালিক এর সদস্য বা গরিব মানুষ৷ মাত্র তিন শতাংশের মালিক হয়ে সরকার যদি এর পুরো মালিকানা বা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়, তাহলে প্রতিষ্ঠানটি ক্ষতিগ্রস্ত হবে৷ তাই ব্যাংকটি রক্ষায় তিনি সবার সহযোগিতা চেয়েছেন৷

এর আগে ড. মুহাম্মদ ইউনূস ‘সোশ্যাল বিজনেস ডে' উদ্বোধন করতে গিয়ে বলেন, সামাজিক ব্যবসা হলো এমন এক ব্যবসা যা মুনাফার চেয়ে সমাজের কল্যাণের দিকে বেশি গুরুত্ব দেয়৷ এই ব্যবসায় সবাই অংশগ্রহণ করতে পারেন৷ তিনি বলেন, প্রচলিত ব্যবসায় ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হওয়ার মানসিকতার কারণেই বিশ্বে আজ অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিয়েছে৷

তিনি বলেন, সারা বিশ্বে সবাই এখন কষ্ট ভোগ করছেন৷ কারণ কিছু মানুষ সবকিছুই ব্যক্তিগত লাভের জন্য করছেন৷ এটা বন্ধ হওয়া উচিত৷

এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন মার্কিন নভোচারী রন গারান৷ একজন বিজ্ঞানী হয়েও সামাজিক ব্যবসায় তাঁর আগ্রহ তৈরি হয়েছে৷ তাঁর মতে শুধু ব্যক্তি স্বার্থ নয়, পুরো সামজের জন্যই অনেক কিছু করার আছে৷

রন গারান বলেন, ‘‘আমাদের সম্পদ এবং প্রযুক্তির অভাব নেই৷ তারপরও কেন সবাই ভালো নেই? এর কারণ, আমারা এই পৃথিবীর বাসিন্দারা সবাই সবাইকে সহযোগিতা করছিনা৷''

ক্ষুদ্র ঋণের মতো সামাজিক ব্যবসারও প্রবক্তা ড. মুহাম্মদ ইউনূস৷ এই সম্মেলেন ১৯টি দেশের ৮০০ জন প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছেন৷ তাদের মধ্যে ১২৫ জন ইতিমধ্যেই সামাজিক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছেন৷ আর বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থী আছেন ৬০০৷ তারা বলছেন, সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমেই ক্ষুধা এবং দারিদ্র্যমু্ক্ত পৃথিবী গড়তে হবে৷ শুক্রবার এই সম্মেলন শেষ হবে৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন