গুয়াইদো′র দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি | বিশ্ব | DW | 30.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

গুয়াইদো'র দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি

ভেনেজুয়েলার স্বঘোষিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান গুয়াইদো'র দেশ ছাড়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশের সুপ্রিমকোর্ট৷ তাঁর বিরুদ্ধে সাংবিধানিক নির্দেশ লঙ্ঘনের অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে৷

মঙ্গলবার ভেনেজুয়েলার বিচারবিভাগের সুপ্রিম ট্রাইব্যুনাল গুয়াইদো'র উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে, পাশাপাশি তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ করার এবং তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরুর নির্দেশ দেয়৷ ৩৫ বছরের গুয়াইদো গত সপ্তাহে নিজেকে ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন এবং  প্রেসিডেন্ট মাদুরোকে ক্ষমতা থেকে উৎখাতের ডাক দেন৷ এরপর থেকেই দেশটিতে রাজনৈতিক অস্থিরতা দেখা দেয়৷

দেশে অস্থিরতা সৃষ্টি এবং সাংবিধানিক নির্দেশ লঙ্ঘনের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত গুয়াইদো দেশ ত্যাগ করতে পারবেন না বলে জানিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট৷

গুয়াইদো মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘‘কারাভোগের হুমকিতে আমি ভীত নই, কারণ, এদেশে এটা নতুন কিছু নয়৷'' মানবতা রক্ষায় লড়াই চালিয়ে যাবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

আন্তর্জাতিক সমর্থন

মাদুরো'র নির্বাচনকে অবৈধ ঘোষণা করে নতুন নির্বাচনের গুয়াইদো'র উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়৷ যুক্তরাষ্ট্র এরই মধ্যে ভেনেজুয়েলার রাষ্ট্র পরিচালিত তেল কোম্পানির বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করে হুঁশিয়ার করে দিয়েছে, গুয়াইদো'র বিরুদ্ধে দেশটি কঠোর ব্যবস্থা নিলে তারাও কঠোর ব্যবস্থা নেবে৷ ব্রাজিল, ক্যানাডা এবং অর্গানাইজেশন অফ অ্যামেরিকান স্টেটস গুয়াইদো'র প্রতি সমর্থন জানিয়েছে৷ জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন, ভেনেজুয়েলায় নতুন নির্বাচন অনুষ্ঠানে তাদের সমর্থন রয়েছে৷

মাদুরো'র প্রত্যাখ্যান

বুধবার নিকোলাস মাদুরো রাশিয়ার এক গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘নতুন কোনো নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়৷ কিন্তু পার্লামেন্ট নির্বাচন এগিয়ে নেয়া যেতে পারে৷ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে, নতুন নির্বাচনের জন্য ২০২৫ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে৷''

মাদুরো'র আদালত

 ভেনেজুয়েলার সুপ্রিমকোর্টের বেশিরভাগ সদস্য মাদুরো'র ঘনিষ্ঠ সহযোগী৷ সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি ক্রিস্টিয়ান সেরপা যুক্তরাষ্ট্র থেকে দাবি করেন, প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের নির্দেশ অনুযায়ী আদালতের কার্যক্রম পরিচালিত হয়৷ গত মাসেই যুক্তরাষ্ট্রে পালিয়ে গেছেন ক্রিস্টিয়ান সেরপা৷

এদিকে বুধবার জার্মান পত্রিকা বিল্ডকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি মাদুরো'র সরকারের উপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বান জানিয়েছে গুয়াইদো৷ তিনি আরো বলেন, ‘‘আমাদের দেশে এখন স্বৈরশাসন চলছে৷ অনেক মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে৷ এ নিয়ে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই যে, পুরো দেশ ভয়াবহ দুর্নীতিগ্রস্ত এবং মাদুরো একজন স্বৈরশাসক৷ গত এক সপ্তাহে ৭০ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ তিনশ' জনেরও বেশি রাজনৈতিক বন্দি কারাভোগ করছেন৷''

এপিবি/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন