1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
Bangladesch IS-Anschlag in Dhaka
ছবি: picture-alliance/AP Photo

গুলশান হামলার ভিডিওগুলো

৪ জুলাই ২০১৬

ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান ক্যাফেতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় সবচেয়ে বেশি যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে, তা ক্যাফের পাশে থাকা কোরীয় নাগরিকের তোলা ৫/৬টি ভিডিও৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A6%B6%E0%A6%BE%E0%A6%A8-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AF%E0%A7%87-%E0%A6%AD%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A6%BF%E0%A6%93%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A7%8B-%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%B2/a-19376007

নিরাপত্তার স্বার্থে তিনি ফেসবুক থেকে ভিডিওগুলো মুছে ফেলার আগেই তারা সারাদেশসহ বিশ্বে ভাইরাল হয়ে যায়৷ শনিবার সকালে কোরীয় নাগরিক (নিরাপত্তার স্বার্থে নাম প্রকাশ করা হলো না) তার মোবাইলে এই ভিডিওগুলো ধারণ করে ফেসবুকে পোস্ট করেন৷

সেই ভিডিওগুলো প্রকাশের পর সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সাংবাদিকদের মনেও নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে৷ প্রথম আলোর সাংবাদিক আলতাফ শাহনেওয়াজ ভিডিওটির কিছু স্থির চিত্র তুলে প্রশ্ন করেছেন ভিডিওতে যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে, যিনি প্রকৌশলী হাসনাত করিম বলে নিজেকে পরিচয় দিয়েছেন, যাকে জঙ্গিরা ছেড়ে দিয়েছে, তার ভূমিকাটা কী ছিল৷

নিউজিল্যান্ডের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আইনজীবী নিঝুম মজুমদারও লিখেছেন সেই একই কথা৷ তার দেয়া লিংকটিতে সব ভিডিওগুলোই আছে, যা থেকে তিনি লিখেছেন, প্রশ্ন হলো আর্টিসান বেকারির ভেতর বসে থাকা টাক মাথা লোকটা অস্ত্রধারীদের সাথে বসে ছিল বেশ বন্ধুত্বপূর্ণ অবস্থায়৷ গতকাল থেকেই আমার ফেসবুকের ইনবক্সে অনেক বন্ধুরা এই লোকের ব্যাপারে অনেক তথ্য পাঠায় এবং এই নিয়ে অনেকের সাথেও কথা বলি৷ আপনারা যদি কোরিয়ান ভদ্রলোকের করা ভিডিও দেখেন তাহলে বুঝবেন আমি কার কথা বলছি৷ সে ভিডিওটি দেখুন এইখানে৷ এখন আবার দেখা যাচ্ছে, এই টাক মাথার লোকটিকে সন্ত্রাসীরা সবার আগে কিছু মহিলা সহ ছেড়ে দিচ্ছে৷ মিডিয়াতে এই ছেড়ে দেবার কথা কিন্তু আসেইনি৷ ফেসবুকের বন্ধুরা জানাচ্ছে এই টাক মাথার লোকটার নাম হাসনাত করিম৷ এই লোক নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক৷ জঙ্গি নিবরাস ইসলাম এবং এর আগেও ব্লগার হত্যাকারী জঙ্গিরা ছিল এই বিশ্ববিদ্যালয়ের৷ আমি শুধু জানতে চাই সন্ত্রাসীদের সাথে এমন মহব্বত যেই লোকের, যেই লোককে সন্ত্রাসীরা ছেড়ে দিয়েছে, সেই লোকটা কে? তাকে কেন জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে না৷''

সাংবাদিক সুপ্রীতি ধরসহ অনেক সাংবাদিকই এই পোস্টটি শেয়ার করে ঐ ব্যক্তির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন৷

হলি আর্টিজেন ক্যাফের ফেসবুক পাতায় কোরীয় নাগরিকের তোলা প্রতিটি ভিডিওট শেয়ার করা হয়েছে৷ এ ঘটনায় নিহতদের সবার পরিচয়ও জানতে পারবেন সেখানে৷

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে হামলাকারী নিবরাস ইসলামের যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে সেটি দেখুন এখানে৷ এই ভিডিওতে নিবরাস তার বন্ধুদের জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছে৷

নিবরাসের আর একটি ভিডিও, যেটি এখন ভাইরাল৷ যেখানে সে গাড়িতে করে কোথাও যাচ্ছে এবং বন্ধুদের সাথে কথা বলছে৷

হামলায় নিহত ইশরাত আকন্দের এই ভিডিওটি ইউটিউবে দেখেছেন অনেকে৷

এই ভিডিওর নীচে মন্তব্যে অনেকেই শোক জানিয়েছেন৷ লিখেছেন, একজন বড় হৃদয়ের মানুষ ছিলেন তিনি৷

গুলশান হামলায় নিহত ভারতীয় নাগরিক তারিশি জৈনের পরিবারের প্রতিক্রিয়া নিয়ে এনডিটিভির করা যে ভিডিও প্রতিবেদনটি ভাইরাল হয়েছে৷

একই ঘটনা নিয়ে ফেসবুক পাতায় ডয়চে ভেলের এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে৷

এপিবি/ডিজি

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Bangladesch Dhaka Sheikh Hasina

৭৫ বছরে শেখ হাসিনা

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান