গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রে আটক দুই ইরানি | বিশ্ব | DW | 21.08.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রে আটক দুই ইরানি

মার্কিন বিচার বিভাগ দুই ইরানি নাগরিককে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে অভিযুক্ত করেছে৷ ইহুদি স্থাপনার উপর নজরদারি এবং ইরান সরকারবিরোধী একটি গোষ্ঠী সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের অভিযোগে চলতি মাসের শুরুর দিকে তাদের আটক করা হয়৷

মার্কিন বিচার বিভাগ দুই ইরানি নাগরিককে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে অভিযুক্ত করেছে৷ ইহুদি স্থাপনার উপর নজরদারি এবং ইরান সরকারবিরোধী একটি গোষ্ঠী সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের অভিযোগে চলতি মাসের শুরুর দিকে তাদের আটক করা হয়৷

তেহরানের হয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে সোমবার দুই ইরানিকে অভিযুক্ত করেছে মার্কিন আদালত৷ মোহাম্মদি ডি. এবং মজিদ জি.-র (জার্মান গণমাধ্যম নীতিমালা অনুযায়ী তাদের পূর্ণাঙ্গ নাম প্রকাশ করা হলো না) বিরুদ্ধে শিকাগোর কয়েকটি ইহুদি স্থাপনার উপর নজরদারি এবং ইরানের সরকারবিরোধী গোষ্ঠী ‘মোজাহিদিন অফ ইরান (এমইকে)' সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের অভিযোগ আনা হয়েছে৷ এমইকে হচ্ছে নির্বাসনে থাকা ইরানি ভিন্নমতাবলম্বীদের একটি গোষ্ঠী, যেটি সহিংস পথে ইরান সরকারকে উৎখাতের পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছে৷

গত ৯ আগস্ট গ্রেপ্তার করা হলেও ওয়াশিংটনের আদালত সোমবার তাদেরকে অভিযুক্ত করেছে৷ দু'জনের বিরুদ্ধেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ইরান সরকারের অনিবন্ধিত এজেন্ট হিসেবে কাজ করার এবং দেশটির উপর জারি করা নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করে তথ্য সরবরাহের অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়েছে৷

অভিযুক্তদের একজন মার্কিন-ইরানি দ্বৈত নাগরিক৷ গত বছরের জুলাইয়ে তিনি শিকাগোতে গিয়ে দু'টি ইহুদি কমিউনিটি সেন্টারের ছবি তুলেছিলেন বলে অভিযোগ৷ সেই সময় তিনি ছবি তোলার কোনো কারণ জানাননি৷ এরপর সম্ভবত তিনি ক্যালিফোর্নিয়ায় গিয়ে মাজিদ জি.-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন৷

মজিদ জি. এরপর সেপ্টেম্বর মাসে নিউ ইয়র্কে একটি এমইকে ব়্যালিতে যোগ দিয়েছেন এবং সেখানে অংশ নেয়াদের ছবি তুলেছেন৷ আর এই কাজ করতে তিনি ২০০০ মার্কিন ডলার নিয়েছেন বলেও তদন্তকারীরা মনে করছেন৷ তিনি চলতি বছরের মার্চ এবং এপ্রিলে ইরান সফর করে সেদেশের সরকারি কর্মকর্তাদের এমইকে সম্পর্কে তথ্য প্রদান করেন এবং তেহরান সরকারের কাছ থেকে গোষ্ঠীটির সঙ্গে আরো সম্পৃক্ত হয়ে তথ্য সংগ্রহের নির্দেশনা পান বলেও জানিয়েছে মার্কিন বিচার বিভাগ৷ 

প্রসঙ্গত, ইরান সরকার এমইকে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে বিবেচনা করে যেটি সেদেশের সরকারকে সহিংস উপায়ে উৎখাতের ষড়যন্ত্র করছে৷ ২০১২ সাল অবধি মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছেও গোষ্ঠীটি একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিসেবে বিবেচিত ছিল৷

দুই ইরানিকে এমন এক সময়ে অভিযুক্ত করা হলো যখন ইরানের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধ চরমে রয়েছে৷

এআই/এসিবি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন