গানের মাধ্যমে করোনা নিয়ে শিক্ষা দিচ্ছেন টোগোর শিল্পীরা | অন্বেষণ | DW | 03.07.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

গানের মাধ্যমে করোনা নিয়ে শিক্ষা দিচ্ছেন টোগোর শিল্পীরা

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে ভুয়া খবরের শেষ নেই৷ ষড়যন্ত্র থেকে শুরু করে এই রোগের অস্তিত্ব নিয়ে সংশয় ছড়িয়ে পড়ছে৷ আফ্রিকার দেশ টোগোর শিল্পীরা গানের মাধ্যমে মানুষের কাছে সঠিক তথ্য তুলে ধরছেন৷

Kenia Symbolbild Smartphones (Getty Images/AFP/Y. Chiba)

প্রতীকী ছবি

আফ্রিকার দেশ টোগোয় কাপোরাল উইসডমের মতো সংগীতশিল্পীরা নিজেদের ভিডিওতে কোভিড-১৯ মহামারির বিপদ সম্পর্কে মানুষকে শিক্ষা দিচ্ছেন৷ এমনকি কাশির সময় কনুই দিয়ে মুখ ঢাকার পরামর্শও দিচ্ছেন৷ শিল্পী হিসেবে তাঁরা অনুরাগীদের স্বাস্থ্যের দিকেও নজর রাখছেন৷

কিন্তু কাপোরাল উইসডমের কাছে বিষয়টি আরও বড়৷ তিনি কোভিড-১৯ সম্পর্কে অনেক ভূয়া খবরের দিকেও নজর রাখছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘অনেক মানুষ ভুল খবরের মধ্যে ডুবে যাচ্ছেন৷ বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলের পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ৷ সেখানে মূলত ভুয়া খবরই শিরোনামে উঠে আসে৷ মানুষ সহজে সঠিক তথ্য পান না৷ সে কারণে আমার গানের মাধ্যমে আমি সেই তথ্য দিয়ে থাকি৷ তাও আংশিকভাবে আমাদের এওয়ে ভাষায়, অথবা বেশিরভাগ মানুষের কাছে পৌঁছতে কিছু অংশ ফরাসি রাখি৷''

ভিডিও দেখুন 03:01

গানে গানে করোনার সতর্কতা

আমেন জা সিসে-ও করোনার বিরুদ্ধে সংগ্রামে শামিল হয়েছেন৷ রাজনৈতিক বার্তার জন্য তিনি এমনিতেই বিখ্যাত৷ তাঁর গানের কথা: করোনা কোনো প্রেসিডেন্ট, জেনারেল বা সংসদ সদস্য চেনে না, আমার ভাই৷

তাঁর সর্বশেষ গানের নাম করোনা ভাইরাস৷ নিজের উদ্দেশ্য তুলে ধরে আমেন বলেন, ‘‘আমি আমার দেশের ভাইবোনদের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে চাই৷ আমার করোনা ভাইরাস গানের মাধ্যমে স্রেফ সুরক্ষার বার্তা তুলে ধরছি৷ ভালো করে হাত ধোও, করমর্দন কোরো না, কমপক্ষে এক মিটার ব্যবধান রাখো৷ এখনো কিছু মানুষ এই রোগের অস্তিত্ব মানতে নারাজ৷ অথবা দাবি করছে, এই রোগে কারো মৃত্যু হয় না৷ আমি সংগীত কাজে লাগাচ্ছি৷ মানুষকে সংবেদনশীল করে তুলতে তাতে সবচেয়ে বেশি কাজ হয়৷ সেটা আমাকে উদ্বুদ্ধ করে৷''

তিনি একা নন, টোগোয় আরও অনেক শিল্পী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সংগ্রামে নেমেছেন৷ গানগুলি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে৷ রেডিও, টেলিভিশন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই সব শিক্ষামূলক গান ছড়িয়ে পড়ছে৷

ম্যাক্সফায়ার নামের শিল্পী বিষয়টির গুরুত্ব তুলে ধরেছেন৷ তাঁর মতে, ‘‘কঠিন সময় এসেছে৷ আমার সর্বশেষ গান করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সংগ্রামে তোমাদের উদ্বুদ্ধ করবে বলে আশা করছি৷''

এর মধ্যে গোটা উদ্যোগ এক আন্দোলনে পরিণত হয়েছে, যার ফলে রাজনীতি জগতের উপরেও চাপ বাড়ছে৷ টোগোয় কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে সংগ্রামে সংগীত একেবারে প্রথম সারির সৈন্য হয়ে উঠেছে৷

নোয়েল টান্ডেনিয়ন/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন