গাজায় ইসরায়েলের হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা | বিশ্ব | DW | 05.05.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইসরায়েল

গাজায় ইসরায়েলের হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা

গাজা থেকে হামাসের ছোড়া কয়েকশো রকেটের কড়া জবাব দিচ্ছে ইসরায়েল৷ রকেট হামলায় এক ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন, পাল্টা হামলায় নিহত অন্তত ছয় ফিলিস্তিনি৷ উভয় পক্ষের কঠোর অবস্থানের কারণে সহিংসতা বাড়ছে৷

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু রবিবার জানিয়েছেন যে ফিলিস্তিনি ভুখণ্ড থেকে রকেট হামলার জবাবে গাজা উপত্যকার বিভিন্ন লক্ষ্যে শক্তিশালী আঘাত অব্যাহত রাখবে তাঁর দেশের সামরিক বাহিনী৷ মন্ত্রীদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘‘আমি আজ সকালে সামরিক বাহিনীকে গাজা উপত্যকার বিভিন্ন সন্ত্রাসী লক্ষ্যে এটির শক্তিশালী আঘাত অব্যাহত রাখতে এবং গাজা উপত্যকার চারপাশে ট্যাংক, আর্টিলারি এবং পদাতিক বাহিনী মোতায়েনের নির্দেশনা দিয়েছি৷'' 

এর আগে মাসখানেকের সাময়িক যুদ্ধবিরতি ভঙ্গ করে গাজা থেকে হামাস ইসরায়েলের দিকে চারশো'র বেশি রকেট ছুড়েছে৷ ভোরের দিকে এক হামলায় উপকূলীয় শহর আস্কেলনে এক ইসরায়েলি নাগরিক নিহত হন বলে ইসরায়েলি মেডিকেল কর্মকর্তারা রবিবার জানান৷ ৫৮ বছর বয়সি মুসা আযাদ শার্পনেলের আঘাতে গুরুতর আহত হওয়ার পর মৃত্যুবরণ করেন৷

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের পর এই প্রথম গাজা থেকে ছোড়া রকেটের হামলায় একজন ইসরায়েলি নিহত হলেন৷ হামলায় অন্তত চার ইসরায়েলি আহতও হয়েছেন৷

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে দেশটির ‘আয়রন ডোম' ডিফেন্স সিস্টেম গাজা থেকে ছোড়া কয়েক ডজন রকেট ধ্বংস করতে সক্ষম হয়েছে৷ আর গাজায় হামাসের বিভিন্ন স্থাপনায় চালানো দু'শোর মতো পাল্টা ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত ছয় ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে৷ ইসলামিস্ট গোষ্ঠী হামাস গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণ করছে৷

হামাসের মিত্র হিসেবে পরিচিত ‘দ্য ইসলামিক জিহাদ' জঙ্গি গোষ্ঠী রবিবার জানিয়েছে ইসরায়েলের বোমা হামলায় তাদের দুই সদস্য নিহত হয়েছে৷

গাজা কর্তৃপক্ষও ইসরায়েলের হামলায় এক অন্তঃসত্ত্বা নারী এবং ১৪ মাস বয়সি একটি শিশু নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে৷ তবে, ইসরায়েলের সেনাবাহিনী গাজায় বেসামরিক নাগরিকদের প্রাণহানির এই খবর অস্বীকার করে বলেছে সেখানে শুধুমাত্র সামরিক বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা চালানো হয়েছে৷

উল্লেখ্য, মুসলমানদের পবিত্র রমযান মাসের আগে আগে আবারো উত্তপ্ত হয়ে উঠলো ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিনের মধ্যকার সম্পর্ক৷ সোমবার থেকে রমজান শুরু হচ্ছে৷ অন্যদিকে, ইসরায়েলের স্বাধীনতা দিবস উদযাপন করা হবে বুধবার৷

এআই/এডিকে (ডিপিএ, এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন