গাজায় আবার ইসরায়েলি বিমান আক্রমণ | বিশ্ব | DW | 16.06.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইসরায়েল

গাজায় আবার ইসরায়েলি বিমান আক্রমণ

ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে যুদ্ধবিরতি দীর্ঘস্থায়ী হলো না। গাজায় আবার আক্রমণ শানিয়েছে ইসরায়েলের যুদ্ধবিমান।

ইসরায়েলি বিমান আক্রমণের পরের ছবি।

ইসরায়েলি বিমান আক্রমণের পরের ছবি।

ইসরায়েলের অভিযোগ, গাজা ভূখণ্ড থেকে জ্বলন্ত বেলুন দক্ষিণ ইসরায়েলে এসে পড়েছে। তারই জবাব দেয়া হয়েছে। বুধবার সকালে গাজায় একটি প্রশিক্ষণ শিবিরে ইসরায়েলি বিমানবাহিনী আক্রমণ চালায় বলে হামাস নিয়ন্ত্রিত ফিলিস্তিনি মিডিয়া জানিয়েছে।

এখনো পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর নেই। ১১ দিন ধরে প্রবল লড়াইয়ের পর গত ২১ মে ইসরায়েল ও হামাস যুদ্ধবিরতির সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। তবে সেই যুদ্ধবিরতি দীর্ঘস্থায়ী হলো না।

ইসরায়েল কী বলছে?

ইসরায়েল প্রতিরক্ষা বাহিনী(আইডিএফ) বিমান আক্রমণের কথা স্বীকার করেছে। তারা এক বিবৃতিতে বলেছে, হামাস জ্বলন্ত বেলুন ইসরায়েলে পাঠিয়েছিল। তার ফলে ইসরায়েলে ২০টি জায়গায় আগুন ধরে যায়। তারই জবাব দেয়া হয়েছে মাত্র। আইডিএফ মুখপাত্র সেই ভিডিও পোস্ট করে দাবি করেছেন, গাজা শহর এবং দক্ষিণ ইসরায়েলের খান ইউনিস শহরকে টার্গেট করেছিল হামাস।

এখন ইসরায়েলে নাফতালি বেনেটের নেতৃত্বে জোট সরকার গঠিত হয়েছে। সেই সরকারের আমলে এই প্রথম আক্রমণ হলো। বেনেট অতীতে বলেছিলেন, এই ধরনের বেলুন এলে সেনাবাহিনী তার কড়া জবাব দেবে।

জেরুসালেম মার্চের ফলে উত্তেজনা

জেরুসালেমে চরম দক্ষিণপন্থি ইহুদি বিক্ষোভকারীরা পতাকা আন্দোলিত করে মিছিল করছে। এই মিছিল পূর্ব জেরুসালেমের আরব সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকায় হয়েছে। এর ফলে ফিলিস্তিনিরা ক্ষুব্ধ।

Erneute Angriffe in Gaza City

জ্বলন্ত বেলুন থেকে লাগা আগুন নেভানো হচ্ছে।

মিছিলে প্রচুর তরুণ আরব-বিরোধী স্লোগান দেয়। ইসরায়েল সরকারও এই মিছিলের নিন্দা করেছে। বিদেশমন্ত্রী ইয়াইর লাপিদ বলছেন, ''যারা এই জাতিবাদী স্লোগান দিচ্ছিলেন, তারা ইসরায়েলের জনগণের মর্যাদাহানি করেছেন।''

জিএইচ/এসজি(রয়টার্স, এএফপি)