1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিও দ্বীপে ১০ কোটি গাছের প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে বন্যার তীব্রতা রোধেও তা ভুমিকা রাখবে
ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিও দ্বীপে ১০ কোটি গাছের প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে বন্যার তীব্রতা রোধেও তা ভুমিকা রাখবেছবি: Nicole Ris/DW
পরিবেশইন্দোনেশিয়া

গাছ বাঁচাবে বন্যার হাত থেকে

২৮ জুলাই ২০২২

ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিও দ্বীপে ১০ কোটি গাছের প্রকল্প বাস্তবায়ন করে কৃষকরা শুধু আর্থিকভাবেই লাভবান হচ্ছেন তা নয়, সেই সঙ্গে সেখানে বন্যার তীব্রতা রোধেও তা ভুমিকা রাখবে৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%97%E0%A6%BE%E0%A6%9B-%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%81%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%AC%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%A4-%E0%A6%A5%E0%A7%87%E0%A6%95%E0%A7%87/a-62624474

আজ কৃষক পাসিহানের কাছে এসেছেন মোনালিসা পুত্রি কাহারাপ৷ তিনি১০ কোটি গাছ লাগানোর প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংগঠন ফেয়ারভেঞ্চার্সের প্রতিনিধি৷ পাসিহান বনায়ন প্রকল্পে প্রায় এক বছর ধরে কাজ করছেন৷ এরইমধ্যে কয়েকশত সেগুন গাছ লাগিয়েছেন তিনি৷ সেগুন খুব দ্রুত বড় হয়৷

মোনালিসা বলেন, ‘‘এগারো মাসে পায় ৫ থেকে ৬ মিটার লম্বা হয়৷ এ কারণে এ গাছ আমাদের পছন্দ৷ তারা যত বড় হয়, তত মাটিতে পুষ্টি যোগ হয়, উর্বরতা বাড়ে৷ আর এতে চাষীরা ক্ষেতে যে কোন গাছ লাগানোর সুযোগ পায়৷ এটা দ্রুত বড় হয় এবং ভাবুন, মধ্য কালিমানতানে লাখ লাখ গাছ কতটা কার্বন শুষে নেয়৷''

কৃষক ও তাদের পরিবারের জন্য এটি শুধু নিয়মিত আয়ের উৎস নয়৷  বোর্নিওতে বন্যা বাড়ছে৷ এটি এই চাষীদের জন্যও বড় সমস্যা৷

বন্যার তীব্রতা কমাতে ১০ কোটি গাছের প্রকল্প

পাসিহান বলেন, ‘‘এখন বছরে তিন থেকে চারবার বন্যা হয়৷ আগে একবার বন্যা হতো বছরে৷ এখন মৌসুম যা-ই হোক, বন্যা হবেই৷ আমি মনে করি, এটা খনির প্রভাব৷ বন উজাড় করা হয়েছে৷ তাই মাটি আর পানি শোষণ করে না৷ যখন অনেক বৃষ্টি হয়, তখন বন্যা হয়৷''

বেশি করে গাছ লাগালে বন্যার প্রভাব কিছুটা কমবে৷ এই অঞ্চলে এরই মধ্যে কোটি খানেক নতুন গাছ লাগানো হয়েছে৷ এর কিছু কেটে কাঠ হিসেবে বিক্রি করা হবে এবং সেগুলোর জায়গায় নতুন গাছ লাগানো হবে৷ আইডিয়া হলো বোর্নিওতে ব্যবসা আকৃষ্ট করে চাষীদের সাহায্য করা৷

মোনালিসার ভাষায়, ‘‘ইন্দোনেশিয়ায় কাঠ শিল্প এখনো জাভাকেন্দ্রিক, তাই না? আমরা এই শিল্পোদ্যোক্তাদের কালিমানতানে বিনিয়োগ করার আহ্বান করছি৷ অথবা চাষীদের এই শিল্পে সরাসরি যুক্ত হতে সাহায্য করছি, যেন কোনো মধ্যসত্ত্বভোগী না থাকে৷ এই সিস্টেমের মাধ্যমে আমরা চাষীদের সর্বোচ্চ লাভের সুযোগ করে দিতে চাইছি৷''

চাষী লিঙ্গা কাসান খুবই আশাবাদী৷ তিনি আশা করেন যে, ১০ কোটি গাছের উদ্যোগ ভবিষ্যতে তার জীবন পালটে দেবে, একইসঙ্গে পরিবেশকেও সাহায্য করবে৷

রিস, ফালাহ/জেডএ

পরিবেশ রক্ষায় ইন্দোনেশিয়ায় গাছ লাগানোর বিশাল প্রকল্প

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Mural für Masha Amini

কুর্দি যোদ্ধাদের ঘাঁটিতে ইরানের হামলা

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান