কয়লার ব্যবহার বন্ধ করছে জার্মানি | বিশ্ব | DW | 19.01.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

কয়লার ব্যবহার বন্ধ করছে জার্মানি

অবশেষে জার্মান সরকার ও দেশটির কয়লা উৎপাদনকারী অঙ্গরাজ্যগুলো ২০৩৮ সালের মধ্যে কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র সম্পূর্ণ বন্ধ করার বিষয়ে একটি চুক্তি করেছে৷ কয়েকটি কেন্দ্র এবছরই বন্ধ করে দেওয়া হবে৷

বৃহস্পতিবার আঙ্গেলা ম্যার্কেল সরকার ও কয়লা উৎপাদনকারী চার অঙ্গরাজ্য তাদের ওই পরিকল্পনার বিস্তারিত তুলে ধরেন৷  অঙ্গরাজ্য চারটি হলো নর্থরাইন-ওয়েস্টফালিয়া, সাক্সনি, সাক্সনি-আনহল্ট এবং ব্রান্ডেনবুর্গ৷

পরিকল্পনা:

# জার্মান সরকার নির্দিষ্ট সময়ের আগেই লক্ষ্যে পৌঁছাতে চায়৷ যে কারণে তারা ২০৩৮ সালকে লক্ষ্যমাত্রা ধরলেও  তিন বছর আগে অর্থাৎ ২০৩৫ সালের মধ্যে কয়লার ব্যবহার সম্পূর্ণ বন্ধ করতে চায়৷

# কয়লার ব্যবহার বন্ধ করার ক্ষতিপূরণ হিসেবে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারীকোম্পানিগুলো ৪৩৫ কোটি ইউরো পাবে৷

# অন্তত আটটি কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এ বছরই বন্ধ হচ্ছে৷

# কয়লার ব্যবহার থেকে বেরিয়ে যাওয়ার এই প্রক্রিয়ায় সরকার ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যগুলোকে এক হাজার চারশ’ কোটি ইউরো দেবে৷

# রাজ্যগুলোকে সহায়তার জন্য ভবিষ্যতে বাড়তি দুই হাজার ছয়শ’ কোটি ইউরো দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে৷

# এই চুক্তিটি যখন পার্লামেন্টের অনুমোদন নিয়ে আইনে পরিণত হবে কেবল তখনই আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া শুরু হবে৷

এ চুক্তির প্রশংসা করে জার্মানির পরিবেশমন্ত্রী স্ফেনিয়া শুলৎস বলেন, ‘‘আমরাই প্রথম দেশ যারা আইন করে শক্তির উৎস হিসেবে পরমাণু ও কয়লার ব্যবহার বন্ধ করছি৷ এর মাধ্যমে আমরা আন্তর্জাতিক বিশ্বকে গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিচ্ছি৷''

অর্থমন্ত্রী  ওলাফ শলৎস বলেন, ‘‘কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ করার জন্য আমাদের যে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হচ্ছে তা বহনযোগ্য এবং আমার বিশ্বাস এর ফল ভালো হবে৷ জার্মানি জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার থেকে সরে আসতে বড় পদক্ষেপ নিয়েছে৷''

এসএনএল/কেএম

পুরোনো ছবিঘরটি দেখুন:

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন