ক্রাইমিয়ায় কলেজে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ১৮ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 17.10.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ক্রিমিয়া

ক্রাইমিয়ায় কলেজে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ১৮

ইউক্রেন ছেড়ে রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্ত হওয়া ক্রাইমিয়ার একটি কলেজে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ১৮ জন নিহত হয়েছেন, যাদের অধিকাংশই তরুণ শিক্ষার্থী৷ একে গণহত্যা আখ্যায়িত করেছেন রুশ তদন্তকারীরা৷

ক্রাইমিয়ার বন্দরনগরী কের্চের টেকনিক্যাল কলেজে এ হামলায় আরো অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন বলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে৷

ক্রাইমিয়ার নেতা সের্গেই আস্কিওনোভ বলেছেন, কলেজের এক ছাত্রই বন্দুকের গুলিতে আত্মহত্যার আগে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটায়৷ 

ভ্লাদিস্লাভ রোসলিয়াকভ নামে ১৮ বছরের এক শিক্ষার্থীকে প্রধান সন্দেহভাজন হিসেবে দেখছেন রুশ তদন্তকারীরা৷

হতাহতদের অধিকাংশই কলেজের শিক্ষার্থী বলে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা তাস জানিয়েছে৷

স্থানীয় সময় বুধবার দুপুরে কলেজের ক্যাফেটোরিয়ায় এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে৷ তদন্তকারীরা বলছেন, বিভিন্ন ধাতব বস্তু দিয়ে ভর্তি ছিল এই বোমা৷

কোথাও আর কোনো বিস্ফোরক রাখা আছে কি না, তাও খুঁজে দেখার কথা জানিয়েছেন রাশিয়ার ন্যাশনাল অ্যান্টি-টেরোরিজম কমিটির এক মুখপাত্র৷

জঙ্গিবাদও খতিয়ে দেখা হচ্ছে

এই হামলার পেছনে জঙ্গিবাদের সংযোগ আছে কি না, তাও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেস্কোভ জানিয়েছেন৷ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন নিরাপত্তা সংস্থাগুলোকেও তদন্তে অংশ নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি৷

রাশিয়া ও ক্রাইমিয়াকে সংযোগকারী নবনির্মিত সেতুর পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত কের্চ৷ ২০১৪ সালে মস্কোপন্থি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভিক্টর ইয়ানুকোভিচকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে ইউরোপপন্থি প্রতিবাদকারীরা৷ এরপরই বলপূর্বক ক্রাইমিয়া দখল করে নেয় রাশিয়া৷

এডিকে/এএইচ (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন