ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলের ভয়াবহ রূপ | বিশ্ব | DW | 11.12.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলের ভয়াবহ রূপ

ক্যালিফোর্নিয়ায় এবারের দাবানলকে বলা হচ্ছে ইতিহাসের অন্যতম ভয়াবহ দাবানল৷ আগুন ছড়িয়ে পড়েছে লসঅ্যাঞ্জেলেসের উত্তরাঞ্চলে, উপকূলীয় বেশিরভাগ শহরের জন্য যা হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ নিউ ইয়র্ক সিটির সমপরিমাণ এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে আগুন৷

রবিবার রাত থেকে সান্তা বারবারার দু'টি উপকূলীয় শহর থেকে ৫ হাজার অধিবাসীকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে৷ গত সোমবার থেকে ক্যালিফোর্নিয়ায় এই দাবানল শুরু হয়৷ শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে থাকে৷ সান্তাবারবারা এবং ভেন্টুরা কাউন্টির অরণ্যে ছড়িয়ে পড়েছে দাবানল৷ রবিবার পর্যন্ত ৫৬ হাজার একর এলাকা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে৷ এখন দাবানল উপকূলীয় শহর মন্টেসিটো এবং কার্পেন্টেরিয়ার দিকে ধেয়ে যাচ্ছে৷

২ লাখ ৩০ হাজার একর জুড়ে এখনো জ্বলছে আগুন, যার আকার নিউ ইয়র্ক সিটির সমান৷ প্রায় ৯০০ স্থাপনা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে৷ ক্যালিফোর্নিয়ার ইতিহাসে পঞ্চম ভয়াবহ দাবানল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে একে৷ গত সপ্তাহে অন্তত ২ লাখ মানুষ নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে৷ দমকলকর্মীরা এর মধ্যে সতর্ক করে দিয়ে বলেছে যে বেগে দাবানল ছড়িয়ে পড়ছে, তা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন৷ জানুয়ারি পর্যন্ত এই দাবানল নেভার কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না তাঁরা৷

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তন এর অন্যতম কারণ৷ রবিবার বিকেলে জনপ্রিয় টেলিভিশন উপস্থাপিকা এলেন ডি জেনেরেস টুইটারে জানান, তাঁদের বাড়ি পুড়ে যাবে বলে আশংকা করছেন এবং তাঁদের বাড়ির পোষ্যগুলোতে অন্যত্র সরিয়ে দিয়েছেন৷ এলাকার প্রতিটি মানুষের জন্য প্রার্থনা করেছেন তিনি৷ পাশাপাশি দমকলকর্মীদের সাহসীকতার প্রশংসা করেছেন৷

কেবল এলেনের বাড়িই নয়, জনপ্রিয় তারকা অপরাহ উইনফ্রে, জেফ ব্রিজেস এর বাড়ির কাছাকাছি এসে পড়েছে দাবানল৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্যালিফোর্নিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি করেছেন৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

১৩ অক্টোবরের ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন