ক্যানাডার কুইবেকে কর্মক্ষেত্রে ধর্মীয় পোশাকে নিষেধাজ্ঞা | বিশ্ব | DW | 15.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ক্যানাডা

ক্যানাডার কুইবেকে কর্মক্ষেত্রে ধর্মীয় পোশাকে নিষেধাজ্ঞা

ক্যানাডার কুইবেক অঞ্চলের সরকারি কর্মচারীরা কর্মক্ষেত্রে ধর্মীয় পোশাক পরতে পারবেন না ৷ সেখানে সম্প্রতি এমন নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে৷

জনসেবামূলক কাজে জড়িত ব্যক্তিদের কর্মক্ষেত্রে   ধর্মীয় পোশাক পরার  ওপর চালু হলো নতুন নিষেধাজ্ঞা৷ ফলে, ক্যানাডার কুইবেক অঞ্চলের আইনজীবী, শিক্ষক, নার্স, ডাক্তার থেকে বাস চালক বা সরকারি আমলারা কাজের সময় পরতে পারবেন না হিজাব বা পাগড়ির মতো কোনো ধর্মীয় পরিধেয়৷

অতি সম্প্রতি চালু হওয়া এই নিষেধাজ্ঞাকে ঘিরে জন্ম নিয়েছে বিতর্ক, আলোচনায় উঠে আসছে ধর্মচর্চার স্বাধীনতা বিষয়ে নানা দিক৷

উল্লেখ্য, কুইবেক অঞ্চলে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের পাশাপাশি রয়েছে শিখ, ইহুদীদের বসবাস, যারা দৈনন্দিন জীবনে পরেন বিশেষ কিছু ‘ধর্মীয় পোশাক'৷

টার্গেট মুসলমানেরা?

টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক নেলসন ওয়াইসম্যান বলেন, ‘‘কুইবেকে সবচেয়ে বেশি হারে বাড়ছে মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষ৷ ফলে, এই নিষেধাজ্ঞার প্রভাব তাদের ওপরেই পড়বে বেশি৷''

বর্তমানে কুইবেকের মোট জনসংখ্যা ৮৩ লক্ষ, যার মধ্যে তিন শতাংশ মানুষ  ইসলাম ধর্মাবলম্বী৷

এমন নিষেধাজ্ঞা চালু হলেও এর বিরোধিতা করেছেন ক্যানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো৷ তিনি বলেন, ‘‘আমি ভাবতেই পারি না আজকের দিনে এমন একটা বিদ্বেষী নিয়ম চালু হয়েছে৷''

ইতিমধ্যে এই নতুন নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতায় পথে নেমেছেন কুইবেকের বেশ কয়েকটি স্থানীয় খ্রিষ্টান, মুসলমান ও ইহুদীদের সংগঠন৷ তাদের সাথে যোগ দিয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সদস্যসহ সমাজের আরো কিছু অংশের মানুষ৷

কিন্তু কুইবেকের প্রধান ফ্রাসোঁয়া লেগল্ট এই নতুন নিয়মকে দেখছেন সাম্যের নজরে৷ তিনি বলেন, ‘‘আমার মতে এখন কুইবেকে যাঁরা সরকারি পদে নিযুক্ত, তাঁদের কোনো ধর্মীয় চিহ্ন বহন করা উচিত নয়৷ এটাই ন্যায্য ও যুক্তিসম্মত৷ আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্যেও এটা দরকার৷''

এসএস/এসিবি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন