কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা দলগুলোর কোনটি কেমন? | বিশ্ব | DW | 04.07.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ফুটবল

কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা দলগুলোর কোনটি কেমন?

আজ শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল৷ বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে ফ্রান্স ও উরুগুয়ে৷ এরপর রাত ১২টায় খেলবে ব্রাজিল আর বেলজিয়াম৷

এই দুই ম্যাচের বিজয়ীরা ১০ জুলাই সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে৷

এরপর আগামীকাল শনিবার হবে ইংল্যান্ড বনাম সুইডেন ও ক্রোয়েশিয়া বনাম রাশিয়ার ম্যাচ৷ ১১ জুলাই সেমিফাইনাল খেলার লক্ষ্যে মাঠে নামবে তারা৷

ফ্রান্স-উরুগুয়ে

কোয়ার্টারে আট দলের মধ্যে মাত্র তিনটি দল এখন পর্যন্ত খেলা চার ম্যাচের সবকটিতে জিতেছে৷ দল তিনটি হচ্ছে উরুগুয়ে, বেলজিয়াম আর ক্রোয়েশিয়া৷ এই তিন দলের মধ্যে আবার উরুগুয়ে চার ম্যাচে মাত্র একটি গোল খেয়েছে৷ তাদের দুই ডিফেন্ডার গোডিন ও গিমেনেজকে পেছনে ফেলে ঐ এক গোল করতে সমর্থ হয়েছে শুধু পর্তুগাল৷ এবার ফ্রান্সকে সেটি করে দেখাতে হবে৷ সেজন্য অবশ্য ফ্রান্সের অস্ত্রের অভাব নেই৷ এক এমবাপে যেভাবে তাঁর গতি দিয়ে আর্জেন্টিনার প্রতিরক্ষা দেয়াল ভেঙে দিয়েছেন, তা উরুগুয়ের জন্য দুশ্চিন্তার কারণ হওয়ার কথা৷ তবে এমবাপে ছাড়াও ফ্রান্সে আছেন গ্রিজমান আর জিরু৷ ফলে কোয়ার্টারের প্রথম ম্যাচে তারকা স্ট্রাইকার আর তারকা ডিফেন্ডারদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা দেখার জন্য দর্শকরা অপেক্ষায় থাকতে পারেন৷

এবার উল্টো দিক দিয়ে ভাবা যাক৷ মাঠের নীচের দিকে যেমন উরুগুয়ের শক্ত ডিফেন্স আছে, তেমনি তাদের আক্রমণভাগেও তারকার অভাব নেই৷ সেখানে আছেন কাভানি আর সুয়ারেজ৷ শেষ ষোলোর ম্যাচে এক কাভানিই দুই গোল করে ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর বিশ্বকাপ স্বপ্ন শেষ করে দিয়েছেন৷ যদিও ম্যাচের শেষ দিকে ইনজুরি নিয়ে তাঁকে রোনাল্ডোর কাঁধে ভর দিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে৷ ফলে এখন শুক্রবারের ম্যাচে তিনি উপস্থিত থাকতে পারেন কিনা সেটা দেখার বিষয়৷

ব্রাজিল-বেলজিয়াম

রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্নে বিভোর নেইমারবাহিনী৷ সেই সঙ্গে তারা গত বিশ্বকাপে জার্মানির বিপক্ষে ৭-১ গোলের লজ্জা মুছে ফেলতে তৎপর৷ দিন যত যাচ্ছে ততই শক্তিশালী হয়ে উঠছেব্রাজিল৷ প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করলেও পরের তিন ম্যাচে কস্টারিকা, সার্বিয়া ও মেক্সিকোর বিরুদ্ধে ২-০ গোলে জয় পেয়েছে৷ অর্থাৎ উরুগুয়ের মতোই ব্রাজিল মাত্র একটি গোল খেয়েছে৷ তাদের তারকা খেলোয়াড় নেইমারও শেষ ম্যাচে একটি গোল করার পাশাপাশি আরেকটি গোলের বল জোগান দিয়েছেন৷ ফলে বেলজিয়ামের মতো টিমের বিরুদ্ধে খেলার আগে কিছুটা ভারমুক্ত থাকতে পারছেন সেলেকাও সমর্থকরা৷

অন্যদিকে, এবারের বিশ্বকাপে উরুগুয়ে, ক্রোয়েশিয়া ছাড়া একমাত্র বেলজিয়ামই তাদের প্রথম চার ম্যাচ জিতেছে৷ যদিও শেষ ষোলোতে জাপানের বিরুদ্ধে জিততে কেভিন ডি ব্রুইনে, আজার ও লুকাকু বাহিনীকে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়েছে৷ তবে বেলজিয়ামের এই দলকে দেশটির ‘সোনালি প্রজন্ম' বলা হচ্ছে৷ ফলে ব্রাজিলকে যে তারা সহজে ছেড়ে দেবে না তা বলাই যায়৷

ইংল্যান্ড-সুইডেন

ইতিহাস গড়ে কোয়ার্টারে এসেছেইংল্যান্ড৷ এবারের বিশ্বকাপের আগে তিনবার নকআউট পর্বে গিয়ে টাইব্রেকারের বাধা পেরোতে পারেনি ইংলিশরা৷ তবে মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো কলম্বিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে জিতে কোয়ার্টারে পৌঁছেছে ১৯৬৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী ইংল্যান্ড৷ এবারের বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হ্যারি কেন খেলেন এই দলে৷ ফলে ১৯৯০ সালের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের সেমিতে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছে তিন সিংহরা৷

তবে ইংলিশদের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ানোর মতো যথেষ্ট কৌশল জানা আছে সুইডিশদের৷ জায়ান্টদের বিশ্বকাপ থেকে তাড়িয়ে দেয়ার রেকর্ডও তাদের ভালো৷ এবারের বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকে ডাচ আর ইটালীয়দের বিদায় করে দিয়েছে সুইডেন৷ আর বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিদায়েও কিছুটা অবদান আছে তাদের৷ এই ধারা যদি অব্যাহত থাকে তাহলে সেটি ইংলিশ সমর্থকদের দুঃস্বপ্নের কারণ হতে পারে৷

রাশিয়া-ক্রোয়েশিয়া

এবারের বিশ্বকাপে এই দুই দলের খেলাই সমর্থকদের অবাক করেছে৷ বিশেষ করে রাশিয়ার পারফর্ম্যান্স সবার প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে গেছে৷ প্রথম ম্যাচে তারা সৌদি আরবকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দেয়৷ পরের ম্যাচে মিশরের বিরুদ্ধে করেছে তিন গোল৷ শেষ ষোলোর খেলায় তারা টাইব্রেকারে স্পেনকে বিদায় করেছে৷ যদিও ঐ ম্যাচে তাদের বলের দখল ছিল মাত্র ২৬ শতাংশ৷

রাকিটিচ আর মডরিচের দল ক্রোয়েশিয়া গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে৷ বাকি দুই খেলায়ও তারা নাইজেরিয়া ও আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে জয় পেয়েছে৷ বিশেষ করে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে অপেক্ষাকৃত দূর্বল দল মাঠে নামিয়েও জয় পেয়েছে ক্রোয়েশিয়া৷ তবে শেষ ষোলোর ম্যাচে ডেনমার্কের বিরুদ্ধে জিততে তাদের ভাগ্যের সহায়তা নিতে হয়েছে৷ মূল খেলা ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পর টাইব্রেকারে গিয়ে ক্রোয়াটদের জিততে হয়েছে৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন