কোরীয় উপত্যকায় শান্তির ব্যাপারে আশাবাদী ট্রাম্প | বিশ্ব | DW | 07.11.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

কোরীয় উপত্যকায় শান্তির ব্যাপারে আশাবাদী ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর এশিয়া সফরের অংশ হিসেবে আজ মঙ্গলবার দক্ষিণ কোরিয়ায় পৌঁছেছেন৷ দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইন তাঁকে প্রেসিডেন্ট ভবনে স্বাগত জানান৷

উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কর্মসূচি থেকে সরিয়ে আনার বিষয়টি তাঁর সফরে মূল বিষয় হিসেবে প্রাধান্য পাবে বলে জানান ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ তিনি আশা করছেন, সাম্প্রতিক সময়ে ঐ অঞ্চলে যে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে তা শান্তিপূর্ণভাবে প্রশমন করা সম্ভব হবে৷ এই বিষয় নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ায় থাকা মার্কিন সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে তিনি আলোচনা করবেন বলেও জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷

প্রেসিডেন্ট ভবনে ট্রাম্পকে স্বাগত জানিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন আশা প্রকাশ করেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই সফর উত্তর কোরিয়াকে ঘিরে তৈরি হওয়া উত্তেজনা প্রশমনের একটি সুযোগ৷ ‘‘আমি জানি আপনি আপনার নিরাপত্তা বিষয়ক অ্যাজেন্ডায় এই বিষয়টি সবচেয়ে আগে রেখেছেন'', ট্রাম্পের উদ্দেশে বলেন মুন৷

এশিয়া সফরে এসে এখনও পর্যন্ত ট্রাম্প উত্তর কোরিয়া ও তার নেতা কিম জং উনের বিরুদ্ধে অগ্নিগর্ভ ভাষা ব্যবহার করেননি৷ এর আগে তিনি প্রয়োজনে উত্তর কোরিয়াকে ‘পুরোপুরি ধ্বংস' করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন৷ এছাড়া কিম জং উনকে তিনি ‘লিটল রকেট ম্যান' বলে আখ্যায়িত করেছিলেন৷

তবে এশিয়া সফরে প্রথম দেশ হিসেবে জাপানে গিয়ে ট্রাম্প উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থা গ্রহণের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেননি৷ উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাকে তিনি ‘সভ্য বিশ্ব, আন্তর্জাতিক শান্তি ও স্থিতিশীলতার প্রতি হুমকি' বলে মন্তব্য করেছেন৷

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের বিরুদ্ধে উত্তর কোরিয়া যেন ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করতে না পারে তার প্রস্তুতি হিসেবে কংগ্রেসের কাছে আরও চার বিলিয়ন ডলার চেয়ে সোমবার একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

দক্ষিণ কোরিয়া সফর শেষে ট্রাম্পের চীন, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইন্স সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে৷

জেডএইচ/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন