কোচ রাহুল দ্রাবিড়, শাস্ত্রী-কোহলি যুগলবন্দি শেষ | বিশ্ব | DW | 04.11.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

কোচ রাহুল দ্রাবিড়, শাস্ত্রী-কোহলি যুগলবন্দি শেষ

বিদায় রবি শাস্ত্রী, ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ হলেন রাহুল দ্রাবিড়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর তিনি দায়িত্ব নেবেন।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের নতুন কোচ রাহুল দ্রাবিড়।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের নতুন কোচ রাহুল দ্রাবিড়।

বিশ্বকাপে ভারত-আফগানিস্তানের ম্যাচ তখন চলছে। তার মধ্যেই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের টুইট এসে গেল। ভারতীয় ক্রিকেট দলের নতুন কোচ রাহুল দ্রাবিড়। ক্রিকেটীয় জীবনে যার পরিচয় ছিল 'দ্য ওয়াল' বলে। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কায় ভারতীয় দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। তবে সেই সফরে বিরাট কোহলিরা ছিলেন না। ছিল শিখর ধাওয়ানের নেতৃত্বে ভারতীয় এ দল।

বিশ্বকাপের পরই অধিনায়কের দায়িত্ব ছেড়ে দিচ্ছেন কোহলি। কোচ বদল হয়ে গেল। শাস্ত্রী-কোহলির যুগলবন্দি শেষ। ভারতীয় ক্রিকেট দল এবার দ্রাবিড়-যুগে পা দিল। নতুন কোচ, নতুন অধিনায়ক ও নতুন ক্রিকেট-দর্শন নিয়ে চলবে ভারতীয় দল। বিশ্বকাপ শেষ হলেই শুরু হবে নিউজিল্যান্ডের ভারত সফর। তখনই দলের দায়িত্ব নেবেন দ্রাবিড়।

বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, রাহুল দ্রাবিড় বিনা-প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কোচ নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগে ভারতীয় দলের কোচ হতে রাহুল রাজি ছিলেন না। তিনি যুব ক্রিকেটারদের প্রশিক্ষণ ও তাদের তুলে আনার কাজের সঙ্গেই যুক্ত থাকতে চেয়েছিলেন। সূত্র জানাচ্ছে, বন্ধু সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের অনুরোধ ফেরাতে পারেননি তিনি। তাই ভারতীয় দলের দায়িত্ব নিতে রাজি হয়ে যান।

তবে নতুন হেড কোচের নাম ঘোষণা করা হলেও নতুন বোলিং, ব্যাটিং ও ফিল্ডিং কোচের নাম ঘোষণা করা হয়নি। দ্রাবিড়ের সঙ্গে আলোচনা করেই তা করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

অবশেষে জয়

বিশ্বকাপে পরপর দুইটি হারের পর অবশেষে জয় পেল ভারত। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। আফগানিস্তান এবার বিশ্বকাপে ভালো খেলছে। দুইটি জয়ও পেয়েছে। কিন্তু বুধবার আমিরাতে ভারত পুরনো ফর্মে খেলেছে। আবার প্রথম ব্যাট করতে হয়েছে ভারতকে। কিন্তু রশিদ খান, নবিদের উড়িয়ে দিয়েছেন রোহিত শর্মা, কে এল রাহুলরা। প্রথম উইকেটের জুড়িতে ১৪০ রান তুলে নেন তারা। এটা ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের রেকর্ড। পরে এসে পান্ডিয়া ও ঋষভও রান পান। ফলে ২০ ওভারে ২১০ রান তুলে নেয় কোহলির দল।

ভারতীয় বোলিংও কিছুটা ছন্দে ফিরেছে। শামি এদিন তিনটি উইকেট পেয়েছেন। বরুণ চক্রবর্তীর জায়গায় অবশেষে দলে আসা অশ্বিন দুইটি উইকেট তুলে নেন। বুমরা পেয়েছেন একটি উইকেট। শেষ পর্যন্ত ৬৬ রানে ম্যাচ জেতে ভারত।

সেমিফাইনালের আশা

বুধবার জিতে সেমিফইনালে যাওয়ার আশা জিইয়ে রাখল ভারত। এরপর ভারতকে বড় ব্যবধানে পরের দুইটি ম্যাচ জিততে হবে। নিউজিল্যান্ডের বাকি দুইটি ম্যাচ। যার মধ্যে একটি আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। একটি ম্যাচে যদি নিউজিল্যান্ড হারে এবং ভারতের রান রেট যদি বেশি থাকে তাহলেই তারা সেমিফাইনালে যেতে পারবে। কঠিন অঙ্ক। তবে একটা আশা এখনো আছে।

জিএইচ/এসজি (বিসিসিআই, স্টার স্পোর্টস)