কেন টি-টোয়েন্টির অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন বিরাট কোহলি | বিশ্ব | DW | 17.09.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

কেন টি-টোয়েন্টির অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন বিরাট কোহলি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেবেন বিরাট কোহলি। ভারতীয় বোর্ডকে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর কুড়ি ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন বিরাট কোহলি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর কুড়ি ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন বিরাট কোহলি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আগে তার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন বিরাট কোহলি। ২০ ওভারের রোমাঞ্চকর ক্রিকেটে তিনি আর ভারতের অধিনায়কত্ব করবেন না। তবে টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে অধিনায়কত্ব করবেন।

কোহলি জানিয়েছেন, সিদ্ধান্ত ঘোষণার আগে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, ক্রিকেটার রোহিত শর্মা, কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে তিনি কথা বলে নিয়েছিলেন। আর এটা কোনো হঠাৎ নেয়া সিদ্ধান্ত নয়। গত ছয় মাস ধরে তিনি এই সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা ভেবেছেন।

ফলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ভারত ২০ ওভারের ক্রিকেটে নতুন অধিনায়ক পেতে চলেছে।

কেন এই সিদ্ধান্ত

কোহলি জানিয়েছেন, তিনি ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই ভারতীয় দলের অধিনায়ক। ফলে তাকে প্রচুর চাপ নিতে হচ্ছে। গত কয়েক বছর ধরে তিনি এই চাপ নিয়ে যাচ্ছেন। তাই তার মনে হয়েছে, টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে অধিনায়কত্ব করার জন্য কিছুটা স্পেস চাই। টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়কত্ব করার সময় তিনি মাঠে পুরোটা উজাড় করে দিয়েছেন। ভবিষ্যতেও দেবেন। কিন্তু ওই স্পেস পাওয়ার জন্য টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়ক থাকবেন না। 

কোহলি জানিয়েছেন, অনেক চিন্তাভাবনার পর তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ঘনিষ্ট বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তারপর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে তিনি আগের মতোই তিন ফরম্যাটের টিমেই থাকবেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, কোহলি ঠিকই বলেছেন, তিনি প্রতিটি ম্যাচে প্রচুর চাপ নেন। মাঠে তার আবেগের বিস্ফোরণ ঘটে। তিনি প্রতিটি ম্যাচ জেতার জন্য জান লড়িয়ে দেন। ফলে এই চাপের প্রভাব তার ব্যাটিংয়ে পড়ছে। তিনি যে মানের ব্যাটসম্যান, সেই তুলনায় সম্প্রতি রান পাচ্ছেন না। আর টি-টোয়েন্টির চাপ সব চেয়ে বেশি। সে জন্যই তিনি এই ফরম্যাটের অধিনায়কত্ব ছাড়তে চেয়েছেন।

বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন, বিরাট কোহলি ভবিষ্যতের কথা ভেবে দায়িত্ব ছাড়তে চেয়েছেন। কোহলি সব ফরম্যাটে ভারতের অন্যতম সেরা অধিনায়ক। আগামী বিশ্বকাপ ও তারপর কোহলি যাতে ভালো খেলতে পারেন, তার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সৌরভ।

সাবেক ক্রিকেটার গাভাস্কার জানিয়েছেন, ভারতীয় বোর্ড যে সামনের দিকে তাকানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এটা খুবই ভালো।

সাবেক নির্বাচক সাবা করিম বলেছেন, তিনটি ফরম্যাটে অধিনায়কত্ব করা সহজ নয়। এই চাপ ক্রমশ বাড়ছে। তাই এটা ঠিক সিদ্ধান্ত।

কে হবেন পরবর্তী অধিনায়ক

কোহলির পর কে ভারতীয় টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব করবেন তা বোর্ড জানায়নি। এই সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য তাদের হাতে অনেকটা সময়ও আছে। কিন্তু সাবেক ক্রিকেটাররা তাদের মত জানাচ্ছেন।

গাভাস্কার জানিয়েছেন, কে এল রাহুলের হাতে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব তুলে দেয়া যেতে পারে। আইপিএলে রাহুল খুবই ভালো অধিনায়কত্ব করেছেন। তিনি বহুদিন ধরে দলে আছেন এবং পারফর্মও করছেন।

আবার সাবেক ক্রিকেটার ও বোর্ডের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য মদনলাল বলেছেন, রোহিত শর্মাকেই অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেয়া উচিত।

জিএইচ/এসজি(পিটিআই)