কৃষিনীতি সংস্কারে সম্মত ইইউ | বিশ্ব | DW | 21.10.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ইউরোপ

কৃষিনীতি সংস্কারে সম্মত ইইউ

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর কৃষিমন্ত্রীরা এ অঞ্চলের যে সাধারণ কৃষিনীতি (সিএপি বা ক্যাপ) রয়েছে তা সংস্কারে একমত হয়েছেন৷ লুক্সেমবুর্গে আলোচনা শেষে বুধবার ইইউ-র সদস্য দেশগুলোর কৃষিমন্ত্রীরা এ বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছান৷

সংস্কারের প্রস্তাবটি রেখেছিলেন জার্মানির কৃষিমন্ত্রী ইউলিয়া ক্ল্যোকনার৷ সবাই এ বিষয়ে একমত হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই এক লাইভ সংবাদসম্মেলনে সানন্দে দিয়েছে বৈঠকের সাফল্যের ঘোষণা, ‘‘অনেক দীর্ঘ এবং শক্ত বাধা পেরিয়ে অবশেষে আমরা এই মাইলফলকে পৌঁছেছি৷’’ স্বাক্ষরিত চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে পরে টুইটারেও এ নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তিনি, ‘‘আমরা করতে পেরেছি!’’ টুইটে জার্মান কৃষিমন্ত্রী লিখেছেন, ‘‘জার্মানির জন্য এর মানে হচ্ছে, আয় এবং খাদ্যনিরাপত্তার ভারসাম্য বজায় রেখে আমাদের বাজেট থেকে ১০০ কোটি ইউরো পরিবেশ বিষয়ক নিয়ম-কানুন বা বায়োমেজার্সে ব্যয় করা হবে৷’’

নতুন প্রস্তাবের আওতায় ইইউ সদস্য দেশগুলো প্রকৃতি সংরক্ষণ, পরিবেশ রক্ষা এবং খাদ্যমাণ নিশ্চিতকরণ সংক্রান্ত লক্ষ্য পূরণের বিষয়ে আরো বেশি স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে৷ তবে প্রত্যেক দেশকে যার যার নীতিমালা ইউরোপীয় কমিশনে অনুমোদনের জন্য পাঠাতে হবে৷ এছাড়া প্রতিটি দেশকে পরিবেশ সংরক্ষণের জন্য আবশ্যক ব্যবস্থাগুলোর বাইরেও পদক্ষেপ নিতে হবে এবং যে কৃষকেরা কৃষিনীতি মেনে কাজ করবেন, তাদের অতিরিক্ত প্রণোদনা দিতে হবে৷

কৃষিনীতিরসংস্কার ২০২৩ সাল থেকে কার্যকর হবে৷ প্রথম দুই বছরকে ‘শেখার সময়’ হিসেবে ধরা হয়েছে৷

এসিবি/কেএম (এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন