কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে আটক হলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী | বিশ্ব | DW | 19.07.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে আটক হলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

উত্তর প্রদেশের সোনভদ্র এলাকায় মৃত কৃষকদের পরিবারের সাথে দেখা করতে যাচ্ছিলেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷ তার আগেই, শুক্রবার নারায়ণপুর শহরে তাঁকে আটক করা হয়৷

জমি না ছাড়ার ‘অপরাধে' অজানা আততায়ীর গুলিতে ভারতের উত্তরপ্রদেশের সোনভদ্র অঞ্চলে প্রাণ হারিয়েছিলেন ১০জন আদিবাসী কৃষক৷ সেই কৃষকদের পরিবারের সাথে শুক্রবার দেখা করতে যাচ্ছিল কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধি দল, যেখানে সামিল ছিলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী৷

বারাণসীতে অন্যান্য কৃষক পরিবারের সাথে দেখা করার পর যখন প্রিয়াঙ্কা মূল ঘটনাস্থল সোনভদ্রর উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন, তখন তার আগেই নারায়ণপুর অঞ্চলে তাঁকে থামানো হলে তিনি অবস্থান বিক্ষোভে বসেন৷ সেখান থেকেই তাঁকে আটক করে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ৷ বলা হয়, এটি শুধুই ‘প্রিভেন্টিভ কাস্টডি', অর্থাৎ প্রতিরোধমূলক হেফাজত৷

কিন্তু এই ঘটনা নিয়ে এর মধ্যে কংগ্রেস মহলে সাড়া পড়ে গেছে৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টি অর্থাৎ বিজেপির দিকে উঠছে প্রশ্নের তীর৷

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের আমলে রাজ্যটি একটি অপরাধের স্বর্গ হয়ে পড়েছে এমন কথা বলেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সিং হুডা৷ শুধু তাই নয়, রাহুল গান্ধী একটি টুইটে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আটক করাকে ‘বেআইনী' আখ্যা দেন ও রাজ্যে বিজেপির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন৷

সংবাদসংস্থা এএনআই একটি টুইটে প্রকাশ করেছে গ্রেপ্তার হওয়ার মূহুর্তের প্রিয়াঙ্কার একটি চিত্র৷ সেখানে তিনি বলছেন, ‘‘আমাদের ভয় দেখানো যাবে না৷ আমরা শুধুই শান্তিপূর্ণভাবে মৃত কৃষকদের পরিবারের সাথে দেখা করতে যাচ্ছিলাম৷ এখন আমি জানিনা আমাকে কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে৷ যেখানেই নিয়ে যাক না কেন, আমরা প্রস্তুত৷''

এসএস/কেএম (সূত্র: এএনআই)

২৬ জানুয়ারির ছবিঘরটি দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন