কিশোরীর বাথরুমে উঁকি দেয়ায় কারাগারে | বিশ্ব | DW | 23.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র

কিশোরীর বাথরুমে উঁকি দেয়ায় কারাগারে

যুক্তরাষ্ট্রের সাউথ ক্যারোলাইনার এক রেঁস্তোরায় এক কিশোরী বাথরুমে গিয়ে হঠাৎ দেখেন একজন উঁকি দিয়ে দেখছেন তাকে৷ লোকটির বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগে মামলা হয়েছে৷

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ডানকানের পুলিশ প্রধান কার্ল লং জানান, অভিযুক্ত ৫৩ বছর বয়সি ডাগলাস লেনের বিরুদ্ধে মাদক সেবন, নগ্ন দেহ দেখতে অতি আগ্রহ দেখানোসহ বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে৷ গত কুড়ি বছরে তিনি বেশ কয়েকবার নানা অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন ৷ গত রোববার যখন ঘটনাটি ঘটে তখন ১৫ বছর বয়সি কিশোরীর বাথরুম ব্যবহারের সময় লেনকে নীচে বসে বাথরুমের দিকে উঁকি দিতে দেখা যায়৷

কার্ল লং বলেন, ঘটনার পর লেন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়৷ কিশোরীর বাবা-মা ছাড়াও অনেকেই তখন একটা সফটবল টুর্নামেন্ট উপলক্ষে সেখানে ছিলেন৷ সবাই তাড়া করে লেনকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়৷

কারাগারে গিয়ে মাথায় ব্যান্ডেজ এবং রক্তাক্ত নাক নিয়ে নিজের একটি ছবি তুলে প্রকাশ করেছেন লেন৷   

সোমবার আদালতে শুনানির সময় লেনের উকিল দাবি করেন, লেন জানতেনই না যে তিনি নারীদের বাথরুমে ঢুকে পড়েছেন৷ এক রাত কারাভোগের পর লেন আপাতত জামিনে মুক্ত৷ নভেম্বরে আবার আদালতে হাজির হতে হবে তাকে৷

এনএস/এসিবি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন