কাশ্মীরে নিহত টিকটক স্টার | বিশ্ব | DW | 26.05.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

কাশ্মীর

কাশ্মীরে নিহত টিকটক স্টার

পুলিশ জানিয়েছে, লস্কর-ই-তইবার সদস্যরা একাজ করেছে। ২৪ ঘণ্টায় এনিয়ে দুইজনকে হত্যা করা হলো।

কাশ্মীরে টার্গেট কিলিং বা নির্দিষ্ট ব্যক্তিকে হত্যার ঘটনা অব্যাহত। বুধবার সন্ধ্যায় বদগামে এক টিকটক স্টারকে হত্যা করা হয়। ৩৫ বছরের আমরিন ভাটকে বাড়িতে ঢুকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ। তার পাশে ভাটের এক আত্মীয় ছিলেন, তিনিও গুলিতে আহত হয়েছেন। আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো জনপ্রিয় ছিলেন আমরিন। তার টিকটক ভিডিয়ো সবচেয়ে জনপ্রিয় ছিল। কেন তাকে হত্যা করা হলো, তা এখনো স্পষ্ট নয়।

পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার সন্ধে ৮টা নাগাদ আমরিনের বাড়িতে ঢুকে পরে হত্যাকারীরা। পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জে তাকে মারা হয়। আমরিন এবং তার আত্মীয়কে হাসপাতালে নিয়ে গেলে আমরিনকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

মঙ্গলবার শ্রীনগরে এক পুলিশের অফিসারের উপর একইভাবে আক্রমণ চালানো হয়েছিল। ওই পুলিশ অফিসার নিহত হয়েছেন। তার মেয়ে তাকে বাঁচাতে গেলে তিনিও আহত হন। তিনিও এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

গোটা কাশ্মীরজুড়েই আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এমাসেই খুন হয়েছেন কাশ্মীরী পণ্ডিত রাহুল ভাট। তারপর থেকে দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে পণ্ডিতরা আন্দোলন শুরু করেছে।

এদিকে বুধবার ইয়াসিন মালিকের রায় ঘোষণা করেছে দিল্লির বিশেষ আদালত। তাকে দুইটি যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি দিয়েছে আদালত। একইসঙ্গে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশও দেয়া হয়েছে। এর আগে আদালতে নিজের দোষ স্বীকার করেছিলেন ইয়াসিন। জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ) তার চরম শাস্তির দাবি করেছিল। তবে আদালত যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেয়। এনিয়েও কাশ্মীর উপত্যকায় উত্তেজনা আছে।

এসজি/জিএইচ (পিটিআই)